রবিবার রাত আটটায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল বাংলাদেশ। ঢাকার মগবাজার এলাকায় ওয়ারলেস গেটের সামনে বিস্ফোরণ হয়। এখনও পর্যন্ত কমপক্ষে ৭  জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন প্রায় ৪০ জনেরও বেশি। রবিবার রাত আটটা নাগাদ বিস্ফোরণ হয়। স্থানীয় প্রশাসন সূত্রের খবর ১৭ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। আহতদের সকলকেই  চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকলে় কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলেও আশঙ্কা করছে প্রশাসন। 

বাংলাদেশের পুলিশের রমনা বিভাগের উপ কমিশনার জানিয়েছেন আচমকা বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে গোটা এলাকায়। আহত হয়েছেন বহু মানুষ। আপাতত ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়দের সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘটনাস্থলে ৯টি ইউনিট উদ্ধারকাজ চালাচ্ছে। সূত্রের খবর বিস্ফোরক এতটাই শক্তিশালী ছিল যে রাস্তার সামনে দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকটি গাড়ি কাঁচ ভেঙে যায়। মগবাজার প্লাজার বেশ কয়েকটি দোকানঘরও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিস্ফোরণের প্রভাবে বৈদ্যুতিন ট্রান্সফরমানের ওপর পলেস্তরা খসে পড়ায় আগুন লেগে যায়। তাতেই আহত হয়েছে বহু মানুষ। 

বাংলাদেশের প্রশাসন জানিয়েছে প্রাথমিকভাবে তদন্তকারী মনে করছে সরমা হাউসে গ্যাস বিস্ফোরণ থেকেই দুর্ঘটনা। তবে গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য ইতিমধ্যেই তৈরি হয়েছে তদন্ত কমিটি। দমকলের পক্ষ থেকে জানান হয়েছে,ভবনের নিচতলায় একটি ফাস্ট ফুডের দোকান রয়েছে। দ্বিতীয় তলে ছিল শোরুম। আর তৃতীয় তলে রয়েছে এরটি স্টুডিও। ভবনেপ সামনে সড়কের কাজ চলছে। সেখানে গ্যাস আর বিদ্যুতের কার রয়েছে।  তাই বিস্ফোরণ  মাসের একটি ভয়াবহ আকার নিয়েছে। এই বিস্ফোরণে এক ৯ মাসের একটি শিশুরও মৃত্যু হয়েছে।