সময় যেন আর কাটছিল না।  আর তো মাত্র একটা মাস।   অপেক্ষার প্রহর গুনেই দিন কাটাচ্ছিল বাঙালি অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। নতুন অতিথির জন্যই মাদার টু বি যেন প্রচন্ড উৎকন্ঠা। অবশেষে অপেক্ষার অবসান। মা হলেন টলি অভিনেত্রী শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়। আজ সকালেই  রাজশ্রীর পরিবারে এল নতুন অতিথি। চলতি মাসের অর্থাৎ সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকেই ছিল সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। অবশেষে এল খুশির দিন।

আরও পড়ুন-মাদকচক্রের সবচেয়ে বড় রাঘববোয়ালের নাম ফাঁস করলেন রিয়া, ভয়ে কাঁপছে বলিউড...

আজ সকালেই কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে পুত্র সন্তানের জন্ম দিলেন অভিনেত্রী। শুভশ্রীর মা হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসা মাত্রই টলিউড খুশির হাওয়া বইছে। এদিকে চক্রবর্তী ও গঙ্গোপাধ্যায় পরিবারের সকলেই খুশি। বর্তমানে মা ও ছেলে দুজনেই সুস্থ রয়েছে বলে জানা গেছে। সূত্র থেকে জানা গেছে সন্তান জন্মের সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন রাজ চক্রবর্তী। রাজ ও শুভশ্রীর সন্তানের ওজন হয়েছে প্রায় ৩ কেজি।  

 

 

নতুন অতিথি আসার আগেই একের পর এক নয়া চমক নিয়ে হাজির হতেন রাজ-শুভশ্রী।মাঝে মধ্যেই নিজের ইনস্টা পোস্টে বেবিবাম্প নিয়েও বিভিন্ন ছবিও শেয়ার করেছেন সেক্সি মাম্মা।  তবে তিনি একা নন বেবিবাম্প ধরে পোজ দিতে দেখা গেছে হবু বাবা রাজকেও। প্রতিটি ছবিতেই পোশাকের উপর দিয়ে স্পষ্ট তার বেবিবাম্প। মুহূর্তের মধ্যে তাদের এই ছবি নেটিজেনদের নজর কেড়েছে।   কিছুদিন আগেই  প্রথমবার একটি বিজ্ঞাপনে একসঙ্গে দেখা গেছে রাজ-শুভশ্রীকে। সদ্যোজাত আসার আগে প্রতিটি জিনিসকে চুটিয়ে উপভোগ করছেন অভিনেত্রী। তেমনই হাসপাতালে যাওয়ার আগেও হাসিমুখে পোজ দিয়েছেন রাজশ্রী।

 

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Very good morning, hv a great day ❤️

A post shared by Raj Chakraborty 🇮🇳 (@rajchoco) on Sep 11, 2020 at 8:33pm PDT

 

কিছুদিন আগেই কোভিড-১৯ -এ আক্রান্ত হয়েছিলেন জনপ্রিয় পরিচালক রাজ চক্রবর্তী। এবং করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর নিজেই টুইটারে জানিয়েছিলেন পরিচালক। শুভশ্রীর সাধের অনুষ্ঠানের ঠিক পরেই শারীরিক অসুস্থতার কারণেই হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন রাজের বাবা কৃষ্ণশঙ্কর চক্রবর্তী। তারপরই করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় রাজ চক্রবর্তীর বাবার। তবে রাজকে হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়নি। সমস্ত ঝড়  পেরিয়ে আবার নিউ নর্মালে ফিরেছেন রাজ-শুভশ্রী। তবে বাবার মৃত্যুর কিছুদিনের মাথায় তাদের পরিবারে আলো করে এল সদ্যোজাত পুত্রসন্তান। রাজের বাবার ফাকা জায়গাই যেন পূরণ করতে হাজির হয়েছে ছোট্ট খুদে।