মঙ্গলবারই টলি-পাড়ার শ্যুটিং বন্ধ রাখার চুরান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেই খবর পাওয়া মাত্রই দেশে ফেরার কথা স্থির করেন মিমি-জিৎ সহ পুরো টিম। ইংল্যান্ডে শ্যুটিং-এ ব্যস্ত ছিলেন টলিউডের তিন তারকা। মিমি চক্রবর্তী জিৎ-এর সঙ্গে ছিলেন অভিনেতা বিশ্বনাথও। বুধবার সকালেই তাঁরা কলকাতা বিমান বন্দরে নামেন। সেখান থেকেই সোজা আইসোলেশনে জাবানে বলেও জানিয়েছেন তাঁরা। 

আরও পড়ুনঃআতঙ্ক যেন পিছু ছাড়ছে না হলিউডের, ফের করোনায় আক্রান্ত ফ্রোজেন ২-এর নায়িকা

আরও পড়ুনঃএবার করোনায় আক্রান্ত গেম অফ থ্রোনসের অভিনেতা, আপাতত রয়েছেন কোয়ারেন্টাইনে

বর্তমানে করোনার জেরে ব্রিটেনের পরিস্থিতি নিয়ে চিন্তার ভাঁজ সকলের কপালে। তবে এর আগে এত ফাঁকা বিমানবন্দর তিনি আগে দেখেননি। দুবাই বা লন্ডন এয়ারপোর্টে যাত্রীর সংখ্যা প্রায় নেই বললেই চলে। কয়েকদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় ইংল্যান্ড যাওয়ার খবর শেয়ার করেছিলেন মিমি চক্রবর্তী। জানিয়েছিলেন সাবধানতা অবলম্বণ করেই সেখানে শ্যুটিং করা হবে। কিন্তু দেশের পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই ফিরে আসেন তাঁরা এবং নিজেরা নিয়ম মেনেই ১৪ দিনের আইসোলেশনে যাওয়ার কথা জানান। 

 

আরও পড়ুনঃপর্নস্টার হতে ছেড়েছেন পরিবার, অবাক করবে মিয়া খালিফার কাহিনি

মিমি চক্রবর্তী বাড়িতেই থাকবেন আইসোলেশনে, আগামী করেকদিন তিনি বাড়ি থেকে বেরবেন না বলেই জানিয়েছেন। বর্তমানে বন্ধ রয়েছে মিমির পাটুলির অফিস। জিৎ জানিয়েছেন, ব্রিটেনের পরিস্থিতি এখনও হাতের বাইরে যায়নি। তবে দেশের মানুষের কথা ভেবেই তাঁরা শ্যুটিং বন্ধ করে ফিরে আসেন। আইসোলেশনে থাকবেন তিনিও। ইংল্যান্ডে বাজি ছবির শ্যুটিং চলছিল বেশ কয়েকদিন ধরে। সেই ছবিতেই মিমি-জিৎ-কে একই সঙ্গে প্রথম দেখা যাবে।