সম্প্রতি দক্ষিণ কলকাতার কোয়েস্ট মলের আইনক্সে,  'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি' ট্রেলর লঞ্চ হয়েছে। এই ছবিটি পরিচালনা করেছেন অরিত্র মুখোপাধ্যায়। এই প্রথম বার উইনডোজ়-এর প্রযোজনায়  'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি' ছবিতে কাজ করছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী  এবং সোহম মজুমদার।  তবে চেনা পথের বাইরে বস্তা পচা সোশ্য়াল ট্য়াবুকে ভেঙে 'সত্য়রে লও সহজে' বলতেই আসছে 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'। 

 

 

আরও পড়ুন, শরীর বদলালেও ছোঁওয়াটা একই থাকে, বাকিটা বলবে দ্বিতীয় পুরুষ

 স্বয়ং সারদা দেবীও মাসিক চলাকালীন ভবতারিণীর ভোগ রান্না করতেন। শ্রীরামকৃষ্ণের অনুমতি নিয়ে মা ভবতারিণীর নিজ হাতে পূজো করতেন।  যেখানে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ মেয়েদের অশুচি বলে ইশ্বরের পূজো দেওয়া থেকে বঞ্চিত করে রেখেছে।  ঋতুমতী অবস্থায় পুজো করা পাপ। এই সমস্ত সোশ্য়াল ট্য়াবু ভাঙার দিন এবার সময় এসেছে। তাই সারদা দেবীর মতই সাধারণ সংসারে অসাধারণ হয়ে ওঠা কাহিনী বলবে  'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'। সমাজে মেয়েদের অধিকার পাইয়ে দিতে, যাবতীয় অসাম্য় ভেঙে সাম্য়ের প্রতিষ্ঠা করবে শবরীর ভূমিকায় ঋতাভরী। আর তাঁকে ভরসা আর ভালবাসায় ভরিয়ে দিতে ছবিতে বিক্রমাদিত্যর ভূমিকায় রয়েছেন  সোহম মজুমদার। তবে এই ছবির আগে ঋতাভরী ও সোহম পরস্পরকে চিনতেন না।  ওয়র্কশপেই সোহমের সঙ্গে তাঁর আলাপ। তাই 'কোন গোপনে' প্রেমের প্লাবনে বিক্রমাদিত্যও মন ছুঁয়ে গেছেন শবরীর।

 

 

আরও পড়ুন, প্রতিবাদের মূলই অস্ত্রই কাগজ-কলম-বই, কলকাতা বইমেলাতে সিএএ নিয়ে সরব স্বরা

শিবপ্রসাদের ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন অরিত্র। অরিত্র নিজেই জানালেন,  তার শিক্ষা কোনও ফিল্ম স্কুলে হয়নি। সবটাই শিবপ্রসাদ ও নন্দিতার সেটে। তাই 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'  গুরুদক্ষিণা হিসেবেই দিতে চেয়েছেন তিনি। অপরদিকে শিষ্য যদি গুরুকে ছাপিয়ে যায়, তার থেকে আর ভাল কি হতে পারে,  জানালেন ছবির প্রযোযক নন্দিতা রায়। যেহেতু এই ছবি সমাজের বস্তা পচা ট্য়াবুকে ভেঙে দিয়ে নতুন প্রাণ প্রতিষ্ঠা করবে শহরের, তাই আগামী ৬ মার্চ নারীদিবসের প্রাক্কালে এই ছবিটি মুক্তি পাবে। ছবিতে চারটি গানই গেয়েছেন মহিলা শিল্পী। লগ্নজিতা এবং উজ্জ্বয়িনী এসেছিলেন ট্রেলর লঞ্চের অনুষ্ঠানে। তারও খুবই খুশি এমন একটা ভিন্ন ধারার ছবিতে থাকতে পেরে। 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'-র অন্য়ান্য় ভূমিকায় অভিনয় করেছেন, সোমা চক্রবর্তী, অম্বরিশ ভট্টাচার্য, মানসি সিনহা, শুভাষিস মুখোপাধ্য়ায়। ছবিতে বরাবরের মতই মায়বী মিউজিক করেছেন অনিন্দ্য় চট্টোপাধ্য়ায়। সিনামাটোগ্রাফিতে রয়েছেন অলোক মাইতি। ছবিটির চিত্রনাট্য় লিখেছেন জিনিয়া সেন।