শুক্রবার সন্ত্রাসবাদী হামলার মুখে পড়ল স্কটল্যান্ডের গ্লাসগো শহর। শহরের বুকে এক হোটেলের সিঁড়িতে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করা হল অন্তত তিনজন ব্যক্তিকে। আততায়ীর পরিচয় এখনও জানা যায়নি। তবে হামলার পরই স্কটিশ পুলিশ তাকে গুলি করে হত্যা করেছে বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যমগুলি।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী এক মহিলা সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিদের জানিয়েছেন, এদিন স্থানীয় সময় দুপুর সোয়া একটা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে। ঘটনাস্থলে বেশ কয়েকজনকে রক্তে মাকামাখি অবস্থায় দেখা গিয়েছিল। জরুরি পরিষেবা কর্মীরা তাঁদের সুশ্রুসা করছিলেন। ঘটনাস্থালে ছুটে এসেছিল সশস্ত্র পুলিশবাহিনীও। এই ঘটনা নিয়ে এমনিতে শান্ত শহর গ্লাসগো-তে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল। তবে জনগণকে আশ্বস্ত করেছেন স্কটল্যান্ড পুলিশের সহকারী চিফ কনস্টেবল স্টিভ জনসন। হামলার বিষয়টি মেনে নিয়ে তিনি জানান, পরিস্থিতি এখন একেবারে নিয়ন্ত্রণে। এই নিয়ে সাধারণ মানুষের আর ভয়ের কিছু নেই।

তবে এদিনের হামলায় একজন পুলিশ কর্মকর্তা গুরুতর আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। জখম অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্কটিশ পুলিশ ফেডারেশনের পক্ষ থেকেও জানানো হয়েছে ওই পুলিশ কর্তাকে লক্ষ্য করে এলোপাথারি ছুরি চালিয়েছিল হামলাকারি।

এই হামলার পিছনে কোনও সন্ত্রাসবাদী গোষ্ঠী জড়িত কিনা, সেই বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এখনও অবধি আততায়ীকে 'লোন উলফ' অর্থাৎ একক হামলাকারী বলেই মনে করছে তারা। পুলিশের পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে বলা হয়েছে, এই ঘটনায় আর জড়িত আর কারোর সন্ধান চালানো হচ্ছে না।

এদিকে গ্লাসগো-র এই হামলার বিষয়ে ইউনাইটেড কিংডমের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। টুইট করে তিনি বলেন, 'গ্লাসগোর ভয়াবহ ঘটনায় গভীরভাবে শোকাহত। হতাহত এবং তাদের পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা। আমাদের সাহসী জরুরি পরিষেবাগুলিতে যারা এই ঘটনায় সাড়া দিচ্ছেন তাঁদের ধন্যবাদ'।