মহামরির বিশ্বে প্রথম করোনাভাইরাসের টিকা ব্যবহারে অনুমোদন দিল ব্রিটেন। ফাইজার বায়োনেটেক-এর তৈরি করা করোনা টিকা ব্যবহারের জন্য ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। আগামী সপ্তাহ থেকেই শুরু হবে টিকাকরণ। করোনা-মহামারির কারণে এখনও পর্যন্ত প্রায় দেড় মিলিয়ন মানুষের প্রাণ গেছে। বিশ্বের অধিকাংশ দেশই আর্থিকভাবে প্রবল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই সময়ই দাঁড়িয়ে ফাইরাজরেকে অনুমোদন দিয়ে মহামারি ক্লান্ত বিশ্বকে আশার আলো দেখাল ব্রিটিশরা।  

দিন কয়েক আগেই ফাইজারের বিকাশ করা করোনাভাইরাসের প্রতিষেধকের তৃতীয় পর্বের ট্রায়ালের ফলাফল সামনে এসেছিল। সেখানে দাবি করে হয়েছিল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে এটি ৯৪ শতাংশ কার্যকর। সেই ফলাফলের ভিত্তিতেই ব্রিটেনের ভ্যাক্সিন কমিটি সিদ্ধান্ত নিয়েছে অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে জরুরি অবস্থায় ফাইজার-বায়োএনটেক-এর তৈরি করা প্রতিষেধক ব্যবহার করা হবে। আগামী সপ্তাহ থেকেই ব্রিটেন জুড়ে এই প্রতিষেধকের সরবরাহ শুরু হবে বলেও জানান হয়েছে। প্রথম দফায় চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিদের টিকা দেওয়া হবে। দেশের প্রবীণ ও অসুস্থদেরও করোনার টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। এই টিকাটির প্রতি ডোসের দাম ১৫ মার্কিন ডলার ধার্য করা হয়েছে। 

ফাইজারের পক্ষ থেকে ব্রিটেনের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান হয়েছে। বলা হয়েছে মহামারির বিরুদ্ধ লড়াইয় করতে ব্রিটেন যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা ঐতিহাসিক। ব্রিটেনের এই অনুমোদনের জন্য বিজ্ঞান জয়ী হবে বলেও জানান হয়েছে। ফাইজার আরও বলেছে মহামারির বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য বিশ্বে একটি নিরাপদ প্রতিষেধক সরবরাহ করার লক্ষ্যেই তারা অবিচল রয়েছে। ব্রিটেনের স্বাস্থ্য সচিব ম্যাট হ্যানকক জানিয়েছেন, আগামী সপ্তাহের প্রথম দিকেই শুরু করে টিকাকরণ প্রক্রিয়া। আর এরজন্য ইতিমধ্যেই প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে ব্রিটেনের হাসপাতালগুলি।