গতকাল আচমকাই মুম্বইয়ের রাস্তায় কয়েক হাজার শ্রমিক ছুটেছুটি  শুরু করেদিয়েছিল। অভিযোগ তাঁরা বাড়ি ফেরার উদদ্দেশ্যেই জড়ো হয়েছিলেন বান্দ্রা স্টেশনে। আর সেই  শ্রমিকদের বিভ্রান্ত করে নিরাপদ আশ্রয় থেকে রাস্তায় বার করে আনার  অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে বিনয় দুবেকে। যিনি নিজেকে একজন শ্রমিক নেতা হিসেবেই দাবি করে আসছেন। অভিযোগ  সোশ্যাল মিডিয়ায় চলো ঘর কি ওর নামে একটি প্রচার চালিয়েছিলেন তিনি। যেখানে বাংলা, বিহার, ওড়িশা থেকে মহারাষ্ট্রে আসা অভিবাসী শ্রমিকদের লকডাউন ভেঙে বাড়ি ফিরে যাওয়ার জন্য প্ররোচিত করছিলেন।

কে এই বিনয় দুবে? স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছেন উত্তর ভারত মহা পঞ্চায়েত নামে একটি স্বাচ্ছাসেবী সংগঠন চালান বিনয় দুবে। মহারাষ্ট্র নবনির্মান সেনার প্রধান রাজ ঠাকরের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্টতা রয়েছে বলেও সূত্রের খবর। মহারাষ্ট্রে কর্মরত অভিবাসী শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়েই বিনয় দুবের স্বেচ্চাসেবী সংগঠন কাজ করে। নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা করতেও দেখা গেছে তাঁকে। 

সাম্প্রতিক বিনয় দুবে যে সব ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছিলেন সেগুলিতে অভিবাসী শ্রমিকদের কথাই তুলে ধরা হয়েছিল। তাঁর বক্তব্য ছিল হয় শ্রমিকরা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যাবে না হলে খিদের জালায় তাদের মৃত্যু হবে। এই দুটি বিকল্প ছাড়া আর শ্রমিকদের কাছে কোনও পথ খোলা নেই বলেও অভিযোগ করেছিলেন বিনয় দুবে। প্রথম দফার লকডাউন ১৪ই এপ্রিল শোষ হয়ে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আগেই বিনয় দুবে সরকারের কাছে আর্জি জানিয়েছিল অভিবাসী শ্রমিকদের নিজ নিজ রাজ্যে ফিরে যাওয়ার জন্য ট্রেনের ব্যবস্থা করতে হবে। আর সরকার যদি তা না করে তা হলে পায়ে হেঁটেই শ্রমিকদের গন্তব্যে যাওয়ার ব্যবস্থা করবেন তিনি। 

মুম্বই পুলিশ জানিয়েছে মঙ্গলবার রাতেই নভি মুম্বই থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে বিনয় দুবেকে।