ভারতে ক্রমেই শক্তি বাড়ছে করোনাভাইরাস-এর। একটি গবেষণা বলছে মে মাসের মধ্যেই ভারত কোভিড-১৯ আক্রান্তে গিজগিজ করতে পারে। ভারতে সমস্যা দেখা পারে হাসপাতালে বেড পাওয়া নিয়ে। এরমধ্যে দেশের বৃহত্তম শুধুমাত্র কোভিড-১৯ রোগীদের জন্যই নিবেদিত হাসপাতাল স্থাপনের সিদ্ধান্ত নিল ওড়িশা।

সংবাদসংস্থা এএনআই জানিয়েছে, ভূবনেশ্বরে ওড়িশা সরকারের স্থাপিত এই হাসপাতালটিতে প্রায় এক হাজার শয্যা থাকবে। এক পক্ষকাল অর্থাৎ ১৫ দিনের মধ্যেই হাসপাতালটি চালু করে দেওয়া হবে। কোনও নতুন ভবন তৈরি নয়, একটি চালু হাসপাকালকেই সম্পূর্ণভাবে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য সাজিয়ে তোলা হবে।

এই স্থাপনা হয়ে গেলে ওড়িশাই ভারতের প্রথম রাজ্য হিসাবে শুধুমাত্র কোভিড -১৯ রোগীদের চিকিৎসার জন্যই এইজাতীয় বৃহৎ আকারের হাসপাতাল স্থাপন করবে। এর আগে মুম্বইয়ে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ-ও মুম্বই-য়ে একটি শুধুমাত্র করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল স্থাপন করেছে। তবে আকারে সেটি ওড়িশার এই হাসপাতালের তুলনাতেই আসে না।

বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রক জানিয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে কোভিড-১৯ আক্রান্ত নতুন রোগীর সংখ্যা বেড়েছে ৪২ জন। আর তাতে ভারতে নিশ্চিত কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৪৯। করোনাভাইরাসজনিত কারণে গত ২৪ ঘন্টায় দেশে আরও ৪ জনের মৃত্যুও হয়েছে। সব মিলিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা হয়েছে ১৩। এদিন তামিলনাড়ু থেকে প্রথম করোনা আক্রান্তের মৃত্য়ুর খবর এসেছে। মোট আক্রান্তের মধ্যে ৬০২ জন ভারতীয় এবং ৪৭ জন বিদেশি নাগরিক।