টস জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথমে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তখন তখন অনেকেরই মনে হয়েছিল ২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপের স্মৃতিটা আবার ফিরে আসবে নাতো? একই ভারত প্রথমে ব্যাটিং করলে কোথায় যেন খেই হারিয়ে ফেলে। তার ওপর আবার মুম্বইয়ের মাঠে খেলা। কিন্তু প্রথম ওভার থেকেই রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল একটা জিনিয় পরিস্কার করে দিলেন। ২০১৯ সালে দাঁড়িয়ে ২০১৬ সালের টি-২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হারের বদলা নিতেই মাঠে নেমেছেন। শেষ দুটি ম্যাচে ছন্দহীন রোহিত ঘরের মাঠে অন্য রূপে ধরা দিলেন। দুই ওপেনারের ১৩৫ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপ। সেখানই যেন ম্যাচটা ক্যারিবিয়ানদের হাতের বাইরে নিয়ে গেল। ৩৪ বলে ৭১ রানের ইনিংস খেললেন হিটম্যান। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৪০০ ছয় মারার রেকর্ড গড়লেন রোহিত। 

আরও পড়ুন - জাতীয় দলে ফেরার লড়াই চলছে হার্দিকের, লক্ষ্য নিউজিল্যান্ড সফর

এরপর রাহুলকে সঙ্গ দিতে এসেছিলেন ঋষভ। কিন্তু মাত্র দু’বল ক্রিজে থাকলেন তিনি। মাঠে এলেন রোহিত। আর নেমেই যেন হায়দরাবাদের ব্যাটিং ঝলক দেখাতে শুরু করলেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজ বোলাররা তখন কোথায় বোলিং করবেন বুঝতেই পারছেন না। বিরাট রাহুল জুটি তখন ওয়াংখেড়ের দল নিয়েছে। ৯৫ রানের পার্টানরশিপ হল দুজনের। রাহুল ৫৬ বলে ৯১ রান করলেন। আর বিরাট ২৯ বলে ৭০ রানের অপরাজিত ইনিংস খেললেন। ২০ ওভারে ওয়েস্ট ইন্জিরে সামনে ২৪১ রানের লক্ষ্য রাখল ভারত। এদিকে ফিল্ডিং করেত গিয়ে চোট পেয়ে বসলেন ক্যারিবিয়ান ওপেরান ইভান লুইস। তাই মাঠে নামার আগেই আরও চাপে পরে গেল পোলার্ডের দল।

আরও পড়ুন - পৃথ্বীর ব্যাটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি, জাতীয় দলে ফেরার দাবি তরুণ ব্যাটসম্যানের

এদিনা আর ক্যারেবিয়ানদের উইকেটে টিকতে দিলেন না ভারতীয় বোলারার। ওভার পিছু ১২ রানের লক্ষ্য তারা করতে নেমে অস্থির হয়ে উঠেছিলেন সিমন্সরাও। তাই সামি-ভুবিদের হাতে একে একে প্যাভেলিয়ানের পথস ধরলেন সিমন্স , পুরানরা। কিন্তু সহজে হাল ছাড়ার পাত্র ছিলেন না দুজন। শিমরন হেটমায়ার ও নিজের সেকেন্ড হোমে খেলতে নামা পোলার্ড। এই জুটি ভারতকে একটু চাপে ফেলার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু কুলদীপের বলে হেটমায়ার ও ভুবির বলে পোলার্ড ফিরতেই শেষ ওয়েস্ট ইন্ডিজের জারিজুরি। ৬৭ রানে মুম্বই জয় করে তিন ম্যাচের টি-২০ সিরকিজ জিতে নিল ভারত। ম্যাচ সেরা হল লোকেশ রাহুল। আর ব্যাটিংয়ে আর বিরাট বিপ্লব দেখিয়ে সিরিজ সেরা বিরাট কোহলি। রবিবার থেকে শুরু হচ্ছে ভারত ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের তিন ম্যাচের একদিনের সিরিজ। প্রথম ম্যাচ হবে চেন্নাইতে। 

 

 

আরও পড়ুন - একদিনের সিরিজেও নেই ধাওয়ান, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সুযোগ পেলেন মায়াঙ্ক