করোনা ভাইরাসের জেরে বিপর্যস্ত স্বাভাবিক জনজীবন। সারা পৃথিবী জুড়ে ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করেছে এই ভাইরাস। এবার এই পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খুললেন লক্ষ্মীপতি বালাজি। তিনি মনে করেন মানুষের মধ্যে বাঁধা বিপত্তি কাটিয়ে ওঠার মতো সমস্ত গুণগুলি রয়েছে। তিনি আরও বলেছেন, আমাদের পূর্বপুরুষরা ভয়ংকর সমস্ত রোগের মধ্যেও বেঁচে থেকেছেন। আমাদের আগের প্রজন্মও দুঃসহ সমস্ত পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠে এগিয়ে যেতে থেকেছে। আমাদের প্রজন্মও সুনামি, বন্যা প্রভৃতি কঠিন পরিস্থিতি কাটিয়ে এসেছে। তাই একটু নিয়ম মেনে চললে সাম্প্রতিক বিপদও কেটে যাবে বলে তিনি মনে করেন। তিনি কিছু ইতিবাচক দিকও খুঁজে দেখেছেন এই পরিস্থিতির মধ্যে। তার মতে এই পরিস্থিতিতে পরে মানুষ একে অন্যের কথা বুঝতে শিখছে। বিভিন্ন দেশ নিজেদের মধ্যে ঝামেলা দূরে সরিয়ে রেখে একে অপরের পাশে এসে দাঁড়াচ্ছেন যা ভবিষ্যতে অত্যন্ত ইতিবাচক প্রমাণিত হতে পারে। 

আরও পড়ুনঃফিরে দেখা আজকের দিনে ভারতীয় ব্যাটসম্যান বীরেন্দ্র সেওবাগের দুটি মহাকাব্যিক ইনিংস

আরও পড়ুনঃ'এটা একটা অসাধারণ ফিফটি', রায়নার অনুদান প্রসঙ্গে বললেন প্রধানমন্ত্রী

বালাজির কাছ থেকে এরকম কথাই অবশ্য প্রত্যাশিত ছিল বলে মনে করছেন অনেকে। প্রাক্তন এই ভারতীয় পেসার নিজের ক্রিকেট কেরিয়ারে দুটি কারণে বিখ্যাত ছিলেন। এক, তার ইতিবাচক মনোভাব যা সকলকে ভরসা জোগায়। দুই, ২০০৪-০৫ ক্রিকেট মরশুমে তার পাকিস্তানের বিরুদ্ধে করা কিছু দুর্দান্ত বোলিংয়ের জন্য। তিনি একসময় ভারতীয় বোলিং বিভাগের একজন গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হয়ে উঠেছিলেন। তারপর তার কেরিয়ারে লাগে একটি বড়সড় ধাক্কা। পিঠের চোটের জন্য প্রায় ৩ বছর মাঠের বাইরে থাকেন তিনি। এরপর মাঠে ফিরে ঘরোয়া ক্রিকেটে এবং আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে ভালো পারফরম্যান্স করে ফের জায়গা করে নিয়েছিলেন জাতীয় দলে। এহেন লোক যে অতি কঠিন সময়েও ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে চলবেন তাতে আর আশ্চর্য কি!

আরও পড়ুনঃকরোনা যুদ্ধে ২৫ কোটি টাকা দান অক্ষয় কুমারের, রিয়েল লাইফ হিরো বললেন হার্দিক পান্ডিয়া