ইস্টবেঙ্গল কোচের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন আলেজান্দ্রো মেনেন্দেস গার্সিয়া। ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে এ দিন ইস্টবেঙ্গল কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ানোর কথা ক্লাব কর্তাদের জানিয়েছেন তিনি। আলেজান্দ্রোর ইস্তফা গ্রহণ করে তাঁর সরে যাওয়ার কথা সরকারি ভাবে জানিয়েও দিয়েছে কোয়েস ইস্টবেঙ্গল কর্তৃপক্ষ। আপাতত কোচিংয়ের দায়িত্বে থাকছেন আলেজান্দ্রোর সহকারীরাই। যদিও, কার্লোস নোদার সহ আলেজান্দ্রোর সঙ্গীরা এর পর আর ইস্টবেঙ্গলে থাকবেন কি না, তা নিয়েও তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা। 

শতবর্ষের পা দেওয়ায় এ বছর প্রিয় দলকে নিয়ে আকাশছোঁয়া প্রত্যাশা ছিল সমর্থকদের। কিন্তু কলকাতা লিগ তো বটেই, ডুরান্ড কাপেও ব্যর্থ হয় লাল হলুদ। আলেজান্দ্রো বেছে নেওয়া দল এবং বিদেশিদের নিয়েও ক্ষোভ বাড়ছিল সমর্থকদের মধ্যে। তার উপর আই লিগে শুরুটা ভাল হলেও মোহনবাগান সহ শেষ তিন ম্যাচে হারের পর এ বারেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আশা কার্যত শেষ। সবমিলিয়ে ইস্টবেঙ্গলের বিনিয়োগকারী সংস্থা কোয়েসের মতোই প্রবল চাপে ছিলেন আলেজান্দ্রো। কারণ বিনিয়োগকারী সংস্থার পক্ষ থেকে বার বারই বলা হচ্ছিল, দল বেছেছেন তিনি। বিদেশিদের নির্বাচনও তাঁর হাত ধরেই। বলা ভাল, ব্যর্থতার দায় কার্যত কোচের উপরই চাপিয়ে দিয়েছিল বিনিয়োগকারী সংস্থা। 

দলের ব্যর্থতা নিয়ে আলোচনার জন্য এ দিনই বিনিয়োগকারী সংস্থার সঙ্গে ক্লাবের কর্মকর্তাদের বৈঠক ছিল। সেই বৈঠকের পরই আলেজান্দ্রোর ইস্তফার কথা জানাজানি হয়। ক্লাবের তরফেও জারি করা হয়েছে বিবৃতি। সেখানে বলা হয়েছে, ব্যক্তিগত কারণে স্পেনে ফিরে যাচ্ছেন স্প্যানিশ কোচ। ক্লাবের তরফে জানানো হয়েছে, যতদিন না নতুন হেড কোচ নিয়োগ করা হচ্ছে, ততদিন পর্যন্ত দলের দায়িত্ব সামলাবেন আলেজান্দ্রোর সহকারীরাই।