করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ২১ দিন লকডাউন গোটা দেশ, দেখে নিন কী কী বন্ধ থাকবে

First Published 25, Mar 2020, 5:20 PM IST

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় দেশজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের ফলে আগামী ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত গৃহবন্দি হয়েই থাকতে হবে দেশবাসীকে। যদিও জরুরী পরিষেবা মিলবে বলে আশ্বাস দিচ্ছে প্রশাসন। তবে কী কী বন্ধ থাকছে এই সময় তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোড় জল্পনা। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের প্রকাশ করা তালিকা অনুযায়ী এই সময় বন্ধ থাকছে যে পরিষেবাগুলি তার একটা তালিকা তুলে ধরা হল আপনাদের সামনে।

পুলিশ, স্বাস্থ্য পরিষেবা সহ সমস্ত রকম জরুরি পরিষেবা ব্যবস্থা ছাড়া সবরকম কেন্দ্রীয় সরকারি, রাজ্যসরকারি ও  আধা সরকারি দফতর বন্ধ থাকবে।

পুলিশ, স্বাস্থ্য পরিষেবা সহ সমস্ত রকম জরুরি পরিষেবা ব্যবস্থা ছাড়া সবরকম কেন্দ্রীয় সরকারি, রাজ্যসরকারি ও আধা সরকারি দফতর বন্ধ থাকবে।

স্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি অফিস, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

স্বশাসিত প্রতিষ্ঠান, বেসরকারি অফিস, বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে।

বন্ধ থাকবে সিনেমা হল, শপিং মল, বিউটিপার্লার, স্পা  ও সুইমিংপুল।

বন্ধ থাকবে সিনেমা হল, শপিং মল, বিউটিপার্লার, স্পা ও সুইমিংপুল।

ওষুধ ও অন্যান্য অত্যাবশকীয় পণ্য উৎপাদন ব্যবস্থা ছাড়া সমস্ত শিল্পোদ্যোগ ও কারখানা বন্ধ থাকবে।

ওষুধ ও অন্যান্য অত্যাবশকীয় পণ্য উৎপাদন ব্যবস্থা ছাড়া সমস্ত শিল্পোদ্যোগ ও কারখানা বন্ধ থাকবে।

রেল, সড়ক, আকাশ ও জলপথে সমস্ত রকম গণ পরিবহণ বন্ধ থাকবে। একমাত্র অত্যবশকীয় পণ্য পরিবহণ ও জরুরি পরিষেবার জন্য পরিবহণ চালু থাকবে।

রেল, সড়ক, আকাশ ও জলপথে সমস্ত রকম গণ পরিবহণ বন্ধ থাকবে। একমাত্র অত্যবশকীয় পণ্য পরিবহণ ও জরুরি পরিষেবার জন্য পরিবহণ চালু থাকবে।

সমস্ত রকম স্কুল, কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও গবেষণা কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

সমস্ত রকম স্কুল, কলেজ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও গবেষণা কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

হোটেল, লজ , রেস্তোরাঁ সব বন্ধ থাকবে। কেবল মাত্র লকডাউনের জন্য যে সব হোটেল, ধর্মশালা মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে তা খোলা থাকবে।

হোটেল, লজ , রেস্তোরাঁ সব বন্ধ থাকবে। কেবল মাত্র লকডাউনের জন্য যে সব হোটেল, ধর্মশালা মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে তা খোলা থাকবে।

বন্ধ থাকবে মন্দির, মসজিদ সহ সব রকম ধর্মীয় স্থান।

বন্ধ থাকবে মন্দির, মসজিদ সহ সব রকম ধর্মীয় স্থান।

সামাজিক অনুষ্ঠান, খেলাধূলা, বিনোদন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ যে কোনও ধরণের জমায়েত বন্ধ থাকবে।

সামাজিক অনুষ্ঠান, খেলাধূলা, বিনোদন, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সহ যে কোনও ধরণের জমায়েত বন্ধ থাকবে।

কোনও মৃতদেহ সৎকারের সময়েও ২০ জনের বেশি মানুষ থাকতে পারবেন না।

কোনও মৃতদেহ সৎকারের সময়েও ২০ জনের বেশি মানুষ থাকতে পারবেন না।

loader