স্বাধীনতা দিবসের আগের দিনই করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরেছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। কিন্তু ফের তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হল। সোমবার গভীর রাতে তাঁকে দিল্লির  এইমস হাসপাতালে তাঁকে  ভর্তি করা হয়। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিত্‍‌সকরা।

সোমবার বুকে ইনফেকশন হওয়ার কারণে তাঁকে দিল্লির এইমস হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর শ্বাসকষ্টের সমস্যা রয়েছে। রাতে তাঁর রক্তচাপও বেড়ে গিয়েছিল। যদিও বর্তমানে তাঁর অবস্থায় স্থিতিশীল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

সোমবার  দিল্লির একটি বেসরকারি হাসপাতালে সিটি স্ক্যান হয় অমিত শাহের। তাতে তাঁর বুকে সামান্য সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপরই শাহ  হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। বর্তমানে চেস্ট স্পেশালিস্ট রণদীপ গুলেরিয়ার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন দেশের । জানা গিয়েছে আগামী ২৪ ঘণ্টা তাঁকে পর্যবেক্ষকণে রাখা হবে।

গত শুক্রবারই করোনামুক্ত হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন অমিত শাহ। গত ১৪ অগস্ট অমিত শাহ টুইট করে বলেন, “ভগবানের কৃপায় ও আপনাদের আশীর্বাদে আমার করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। তবে চিকিৎসকদের পরামর্শে আগামী কিছু দিন আমি হোম আইসোলেশনেই থাকব।” স্বাধীনতা দিবসে দিল্লির বাস ভবনে পতাকা উত্তোলন করতেও দেখা গিয়েছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে। তবে সোমবার রাতে ফের তাঁকে ভর্তি করতে হল হাসপাতালে।

দিল্লির  এইমস হাসপাতালের তরফে প্রকাশিত বুলেটিনে জানানো হয়েছে, 'গত ৩-৪ দিন ধরে গা-হাত-পা ব্যাথায় ভুগছিলেন অমিত শাহ। ক্লান্ত বোধ করছিলেন। তবে তাঁর কোভিড ১৯ রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। কোভিড থেকে সেরে ওঠার পরবর্তী যত্ন নেওয়ার জন্যই তিনি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তিনি ভালো আছেন। হাসপাতাল থেকেই তিনি তাঁর কাজকর্ম চালাবেন।'

২ অগস্ট কোভিড সংক্রমণ ধরা পড়ায় অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজোতেও উপস্থিত থাকতে পারেননি শাহ। তবে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে নিয়ে উদ্বেগের কোনও কারণ নেই।