Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Babul Supriyo:মঙ্গলেই সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা বাবুলের, 'সিট আটকানো উচিত নয়',বার্তা প্রাক্তন মন্ত্রীর

 সাংসদ পদে ইস্তফা বাবুলের। দীর্ঘ টানা পোড়েনের পর অবশেষে লোকসভার স্পিকারের বাসভবনে গিয়ে বিজেপির সাংসদ পদে যবনিকা টানলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়।  

Babul Supriyo resigned as Lok Sabha MP at speaker OM Birlas House RTB
Author
Kolkata, First Published Oct 19, 2021, 2:09 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

 সাংসদ পদে ইস্তফা বাবুলের (Babul Supriyo)। দীর্ঘ টানা পোড়েনের পর অবশেষে (BJP MP) বিজেপির সাংসদ পদে যবনিকা টানলেন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। আগে থেকে ঠিক ছিল যে,  লোকসভার অধ্যক্ষ ওম বিড়লার (Om Birla) সঙ্গে মঙ্গলবার বেলা ১১ টা নাগাদ বাবুল সুপ্রিয়ো দেখা করবেন। এদিন সেই মতোই (Lok Sabha Speaker) লোকসভার স্পিকারের বাড়িতে হাজির হন তিনি। এবং আনুষ্ঠানিকভাবে লোকসভার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেন তিনি। টুইটারে এই খবর নিজেই জানিয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়ো (Babul Supriyo)।

আরও পড়ুন, 'বাংলাদেশের ঘটনায় কারা উপকৃত হচ্ছে', শুভেন্দুর কথা টেনে BJP-কে তোপ কুণালের

টুইটে বাবুল আগেই লিখেছিলেন, ওম বিড়লা মঙ্গলবার সকাল ১১ টায় আমার পদত্যাগ পত্র জমা দেওয়ার জন্য সময় দিয়েছেন। তাঁকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি আর বিজেপিতে নেই। তাই বিজেপি সাংসদ হিসেবে কোনও বেতন-সুযোগ সুবিধা গ্রহন করব না। আমি এই আসনে জয়ী হয়েছিলাম। যদি আমার মধ্যে কিছু থাকে তাহলে আবার জয়ী হব।' প্রসঙ্গত, অগাস্ট মাসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীয় ছাড়তে হয়েছিল বাবুলকে। এর পরেই বিস্তর জল ঘোলা হয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজনীতি ছাড়ার কথা বলেছিলেন তিনি। যদি শেষ অবধি জানান বিজেপি সংসদ পদে থেকে দায়িত্ব সামলালেও দলীয় মিটিং-মিছিলে তিনি থাকবেন না। কথা মতো নিজের আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিব্রেওয়াল ভবানীপুরে মমতার বিরুদ্ধে দাড়ালেও তিনি প্রার্থীর হয়ে প্রচারে বেরোননি। এমননকি প্রচারের ব্যানারে নাম ছাপ হয়ে গেলেও নিজের কথা থেকে সরেননি। এরপরেই আসে মাহেন্দ্রক্ষন। দল বদল করে তৃণমূলের যোগ দেন বাবুল। যদিও যোগ দিয়েও লোকসভায় বিজেপির সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেওয়া নিয়ে কাল ঘাম ছোটে। কারণ দীর্ঘদিন ধরে এই ইস্তফা নিয়ে টানা পোড়েন চলতে থাকে। অবশেষে এদিন কোজাগরি লক্ষীবারেই লোকসভার সংসদ পদে ইস্তৎা দিলেন বাবুল সুপ্রিয়ো।

আরও পড়ুন, ভোটের প্রচারে বেরিয়ে মনীশ শুক্লার বাড়িতে BJP প্রার্থী জয়, প্রয়াত নেতার বাবা-মায়ের নিলেন আশীর্বাদ

প্রসঙ্গত, বাবুলের ইস্তফা ইস্যু নিয়ে অনেকদিন ঝুলে ছিল। প্রথমবার স্পিকারের থেকে সময় না পাওয়ার জন্য ইস্তফা দিতে পারেননি প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। সেবার তিনি টুইট করে জানিয়েছিলেন, ২৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। তবে সেদিন স্পিকারের সঙ্গে দেখা করার কথা ছিল বাবুলের । কিন্তু শেষ অবধি আবার পিছিয়ে যায়। সেবারও স্পিকারের অফিস থেকে সময় পাননি প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। উল্লেখ্য, বাবুলের ইস্তফা ইস্যুতে ভেসে আসে রাজ্য বিধানসভায় শুভেন্দুর ইস্তফা ইস্যুর ছায়া। কারণ আলাদা থাকলেও সেবারও ইস্তফাকাণ্ডে কম জল ঘোলা হয়নি। কল্যাণ বন্দ্য়োপাধ্যায়ের সাক্ষাত পেতে শুভেন্দু অধিকারীরও লেগেছিল দীর্ঘ সময়। 

আরও দেখুন, বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios