২০২১ সালের CBSE পরীক্ষা বাতিল করা হবে না। কোভিড প্রোটোকল মেনে গতবছরের মত এবছরও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সূত্রের খবর রবিবার কেন্দ্র ও রাজ্যগুলির মধ্যে একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সেই উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, জুনের পরিবর্তে আগামী জুলাই মাসে সিবিএসই বোর্ড পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। শিক্ষামন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল আরও পর্যালোচনা করে আগামী ১লা জুন সিবিএসই ১২ শ্রেণির পরীক্ষার দিন ঘোষণা করবেন। একই সঙ্গে পরীক্ষা পদ্ধতি সম্পর্কেও জানাবেন তিনি। পুরো পক্রিয়াটি সেম্পম্বর পর্যন্ত চলবে বলেও জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। সূত্রের খবর শুধুমাত্র প্রধান বিষয়গুলি পরীক্ষা নেওয়া হবে। সেই পরীক্ষায় প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতেই মান নির্ধারণ করা হতে পারে বলেও মনে করছে একাংশ। 

সূত্রের খবর এদিন সিবিএসই-১৯টি প্রধান বিষয় কী করে পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে তা নিয়ে আলোচনা হয়েছিল। রাজ্যগুলি প্রধান বিষয়গুলি পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে সমর্থন জানিয়েছে। তবে বাকি বিষয়গুলি অভ্যন্তরীণ মূল্যায়নের মাধ্যমে মান নির্ধারণ করার হতে পারে। এদিনের বৈঠকে তিন ঘণ্টার পরিবর্তে ৯০ মিনিট বা দেড় ঘণ্টার পরীক্ষার বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। শিক্ষার্থীরা তাদের স্কুলেই পরীক্ষা দিতে পারবে। প্রশ্নপত্র কম্পিউটারের মাধ্যমে স্কুলগুলিতে পাঠিয়ে দেওয়া হতে পারে- এই বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়েছে। করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় তরঙ্গ আছড়ে পড়ার পরই সিবিএসই পরীক্ষা নিয়ে আনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছিল। এই বৈঠকে সেই অনিশ্চয়তা কাটল বলেও মনে করছেন সংশ্লষ্টরা। করোনাভাইরাসের সংক্রমণের কারণে অভিভাবক ও পরীক্ষার্থীরা ও শিক্ষকরাও পরীক্ষা বাতিলের আর্জি জানিয়েছিলেন। কিন্তু আপাতত যা অবস্থা তাতে পরীক্ষা গ্রহণের ওপরেই জোর দেওয়া হয়েছে। 

এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষামন্ত্রী রমেশচন্দ্র পোখরিয়াল, মহিলা ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী স্মৃতি ইরানি, সথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকড়। বৈঠকের সভাপতিত্ব করেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। এছাড়াই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সকল রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী, রাজ্যের শিক্ষা সচিবরা। রমেশচন্দ্র পোখরিয়াল জানিয়েছিলেন এই বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর পরামর্শও চেয়েছিলেন তিনি।