পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নতুন দিল্লিতে আগামী ২৮ জুলাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দেখা করতে পারেন। তিনি রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গেও দেখা করতে পারেন। আগামী ২৫ জুলাই তিনি দিল্লি যেতে পারেন বলেও তৃণমূল সূত্রের খবর। 

বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন তিনি দু-তিন দিনের জন্য দিল্লি যাবেন। সেই সময়ই প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করার জন্য সময় চেয়েছেন। প্রতিবছলই সংসদের অধিবেশন চলাকালীন দিল্লিতে আসেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায় পুরনো সহকর্মীদের সঙ্গে এই সময় দেখা করা যায়। নতুন অনেকের সঙ্গে আলাপ আর পরিচয় হয়। সূত্রের খবর এবার মোদী বিরোধী রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গেও তিনি দেখা করতে পারেন। একটি সূত্র বলছে কংগ্রেস সভানেত্রী সনিয়া গান্ধীর সঙ্গে সাক্ষাতের জন্যও সময় চাওয়া হয়েছে। 

ভোটের পর এটাই হতে চলছে মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়েপ প্রথম দিল্লি সফর। যদিও ভোটের পর ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে আলোচনার জন্য রাজ্যে এসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে তাঁর প্রথম সাক্ষাৎ ছিল তৃতীয়বার রাজ্যের ক্ষমতা দখলের পর। তবে সেই বৈঠকে তেমন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়নি। কারণ প্রাকৃতিক দুর্যোগ বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শনের কাজে ব্যস্ত থাকায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর হাতে শুধুমাত্র রিপোর্ট দিয়েই বেরিয়ে এসেছিলেন। যার জেরে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। তবে এবার নিয়ম মেনেই আগে থেকে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।  তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই দিল্লি সফর যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ বলেও মনে করছে রাজনৈতিক দলগুলি।