কংগ্রেস থেকে পদত্যাগ করার একদিন পর, বুধবার দুপুরে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিলেন জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ধর্মেন্দ্র প্রধান-ও। জে পি নাড্ডা-ই তাঁর হাতে দলের সদস্যপদ তুলে দেন। নাড্ডা জানান, রাজমাতা বিজয়া রাজে সিন্ধিয়া জনসংঘ তথা ভারতীয় জনতা পার্টির গঠন ও নীতি তৈরিতে বড় ভূমিকা নিয়েছিলেন। তাঁর পৌত্র দলে ফিরে আসাটা অনেক বড় যোগদান।

এদিন ভারতীয় জনতা পার্টি-তে যোগ দিলেও তাঁর অভিব্যক্তি দেখে মনে হয়েছে তাঁর মনের ভিতর তোলপাড় চলছে। একবারের জন্যও তাঁকে এদিন হাসতে দেখা যায়নি। যোগদানের পর সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি বলেনও বিজেপি-তে যোগ দেওয়ার আনন্দের পাশে তাঁর মনে কংগ্রেস ছাড়ার দুঃখ-ও রয়েছে। তিনি জানান তাঁর জীবনে দুটি গুরুত্বপূর্ণ দিনের মধ্যে একটি হল আজকের দিনটি। আরেকটি তাঁর বাবার মৃত্যুদিন।

দুটি দিনই তাঁর জীবনের অন্য়তম বাঁক বলে জানান তিনি। জ্যোতিরাদিত্য বলেন দেশের কাজ করার জন্যই রাজনীতি। দেশের থেকে রাজনীতি বড় নয়। মধ্যপ্রদেশে দলের সরকার নিয়েও তিনি এদিন মুখ খোলেন। জানান, ১৫ মাস আগে ২০১৮ সালে রাজ্যে যখন কংগ্রেস সরকার গড়েছিল, সেই সময়ে তিনি আশা করেছিলেন রাজ্যে অনেক কাজ করতে পারবেন। মান্দসোরে কৃষকদের দাবি নিয়ে তিনি নিজে সত্যাগ্রহ শুরু করেথছিলেন। কিন্তু ১৫ মাস পর সেই স্বপ্নের সমাধি দিতে হয়েছে।

তাই, এখন নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে দেশের কাজ করা যাবে বলে মনে করছেন তিনি। কারণ, প্রথমত নরেন্দ্র মোদীর উপর দেশের মানুষ দুই-দুইবার ভরসা করেছে। কোনও প্রকল্প কীভাবে রূপায়ন করতে হয় তা মোদী সবচেয়ে ভালো জানেন। তাই তাঁকে বিজেপি পরিবারে এসে দেশের জন্য কাজ করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য তিনি বিজেপির নেতাদের ধন্যবাদ জানান।