অবশেষে ন্যায় বিচার পেল কাঠুয়ায় আট বছরের মেয়েটি। কাঠুয়া কাণ্ডে অবশেষে  সাজা ঘোষণা হল পাঠানকোট আদালতে। যাবজ্জীবন সাজা ঘোষণা হল দীপক খাজুরিয়া, সনজি রাম ও পরবেশ কুমারের। অর্থাৎ ২৫ বছরের জেল এবং ১ লক্ষ টাকা করে জরিমানা হয়েছে তাদের। 

একই সঙ্গে তিলক রাজ ও আনন্দ দত্ত ও সুরেন্দ্র  কুমারের বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণে লোপাটের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাদেরও শাস্তি দিয়েছে আদালত।পাঁচ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়েছে তাদের।

নির্ভয়া কাণ্ডে দেশ উত্তাল হয়েছিল। তার পরে যদি কোনও ঘটনা দেশকে নাড়া দিয়ে থাকে, তা হল কাঠুয়া কাণ্ড। গত বছর জানুয়ারি মাসে ঘোড়া চরাতে গিয়ে নিখোঁজ হয় কাশ্মীরের আট বছরেরে ফুটফুটে শিশু। চারদিন ধরে টানা মাদক খাইয়ে আচ্ছন্ন করে রাখা হয়। চলে লাগাতার ধর্ষণ। এর পরেও দোষীদের আড়াল করার চেষ্টা করে হিন্দু একতা মঞ্চ। চার্জশিট পেশ করতেও বাধা দেওয়া হয়। নির্যাতিতার পরিবার সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন এই মামলা সরিয়ে নেওয়ার জন্যে। এরপরে রুদ্ধদার মামলা চলতে থাকে পাঠানকোটে। শুনানি শেষ হয় ৩ জুন। অবশেষে এদিন কাঠুয়া মামলার রায় বেরিয়ে এল।