শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার সময় অযোধ্যার বিতর্কিত জমি মামলার রায় বের হবে।  নিরাপত্তার চাদরে মুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে দেশকে। ইতিমধ্যে  সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের কোর্টের বাইরে সমস্ত আইনজীবীরা জড়ো হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। 

 

দেড় বছর আগে রঞ্জন গগৈ সিজেআই দীপক মিশ্রার বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করে সংবাদের শিরোনামে চলে এসেছিলেন। প্রধান বিচারপতি থাকার সময় তাঁর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ নিয়ে আসা হয়েছিল।

উত্তরপ্রদেশ , জম্মু ও কাশ্মীর  এবং গোয়া জুড়ে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এছাড়া মধ্যপ্রদেশর ভোপাল, কর্ণাটকের বেঙ্গালুরু ও রাজস্থানের জয়পুরে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এর ফলে ১৪৪ ধারা জারি করা এলাকায় চার জনের বেশি ব্যক্তি কোনও জমায়েত করতে পারবেন না। 

শনিবার নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে মধ্যপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, জম্মু ও কাশ্মীর, কর্ণাটক ও দিল্লির স্কুল, কলেজ ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। উত্তরপ্রদেশ সরকার সোমবার পর্যন্ত বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

শনিবার মধ্যরাত পর্যন্ত উত্তরপ্রদেশের আলিগড়ে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যদি প্রয়োজন হয়, অযোধ্যায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখা হতে পারে বলে উত্তরপ্রদেশের প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে।