সোমবার সকালে বড়সড় দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল আগ্রা। আগ্রার আওয়াধ ডিপো থেকে রওনা হওয়া একটি যাত্রীবোঝাই জনরথ বাস যমুনা সড়ক থেকে গিয়ে পড়ল সরাসরি ‌খাদে। প্রাথমিক তদন্তে জানা যাচ্ছে, বাসটি প্রায় ৫০ ফিট উচ্চতা থেকে  নীচে গড়িয়ে যায়। পুলিশের অনুমান, গোটা ঘটনার দায় বাসটির ড্রাইভারের। তিনিই স্টিয়ারিং হাতে ঘুমে ঢলে পড়লে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারায়।

জেলা প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে এখন জোরকদমে তল্লাশি চলছে। এ যাবৎ ২৯ জন্যের মৃত্যুর কথা  ঘোষণা করা হয়েছে। আগ্রার জেলাশাসক এনজি রবিকুমার বলছেন, 'ড্রাইভার ঘুমিয়ে পড়ার দরুণ এই দুর্ঘটনা ঘটেছে। প্রায় ৫০ ফুট নীচে গিয়ে পড়েছে বাসটি, আমরা চেষ্টা করছি কোনও জীবিত মানুষের সন্ধান পাওয়া যায় কিনা তা দেখতে।  ইতিমধ্যেই যারা রক্ষা পেয়েছেন কোনওমতে, তাদের চিকিৎসার জন্যে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে বাসটির ড্রাইভার জীবিত রয়েছেন কিনা।' ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন উত্তরপ্রদেশের প্রধানমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।
আরও পড়ুনঃ ফের বাধ্য করা হল 'জয় শ্রী রাম' বলতে, ৩ সংখ্যালঘু যুবকের ওপর অত্যাচার
বিহারের পর এবার অসমে থাবা বসাল এনকেফালাইটিস, এখনও পর্যন্ত মৃত ৪৯

আহত এক ব্য়ক্তির কথায়, বাসটি হঠাৎই নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা মারে যমুনা সড়কের রেলিং-এ। তারপর রেলিং ভেঙে সোজা গর্তে তলিয়ে যায়।  আগ্রার এসএসপি বাবলু কুমার জানাচ্ছেন, 'অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক ঘটনা। আমরা মৃতদেহ উদ্ধার করেই চলেছি। যাদের শরীরে এখনও প্রাণ রয়েছে, তাদের আমরা তড়িঘড়ি হাসপাতালে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি।'