শেষ পর্যন্ত ৩৫৬ ধারাই লাগু করা হল মহারাষ্ট্রে। রাজ্যপালের বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্য়ে বিজেপি, শিবসেনা বা এনসিপি কোনও দলই সরকার গঠনের সুযোগকে কাজে লাগাতে না পারার কারণে রাজ্যে জারি হল রাষ্ট্রপতি শাসন। মংঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত সরকার গঠনের দাবি জানানোর সুযোগ দেওয়া হয়েছিল এনসিপি-কে। তার অনেক আগেই রাজ্যে জারি করা হল রাষ্ট্রপতি শাসন। এখনও অবশ্য মুম্বইয়ে নিজেদের অবস্থান ঠিক করতে বৈঠক করছেন কংগ্রেস ও এনসিপি নেতারা।

মঙ্গলবার দুপুরেই শোনা গিয়েছিল কেন্দ্রের কাছে মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারির সুপারিশ করেছেন রাজ্যপাল ভগৎ সিং কোশিয়ারি। এদিন ব্রিকস সম্মেলনে যোগ গিতে ব্রাজিল সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তার আগে জরুরী ভিত্তিতে মন্ত্রীসভার বৈঠক ডাকা হয় মহারাষ্ট্রে রাষ্ট্রপতি শাসন জারি করার সুপারিশে সায় দেওয়া না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে। মোদী মন্ত্রীসভা রাজ্যপালের সুপারিশে অনুমোদন দেওয়ার পর তা পাছঠানে হয় রাষ্ট্রপতির অনুমোদনের জন্য। রাষ্ট্রপতি সবুজ সঙ্কেত দিতেই ফলাফল বের হওয়ার ১৮ দিন পর মহারাষ্ট্রে জারি করা হল রাষ্ট্রপতি শাসন। অর্থাৎ আইন শৃঙ্খলা রক্ষার ভার থাকবে কেন্দ্রীয় সরকারের হাতে।

বিস্তারিত আসছে...