বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির দাবি মেনেই মঙ্গলবার বাদল অধিবেশনের দ্বিতীয় দিনে লাদাখ ইস্যুতে বিবৃতি দিলেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। তিনি বলেন প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ সীমা রেখা মানতে নারাজ চিন। তারপরেও ভারত চিনের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ কথাবলতে চায়।  তিনি বলেন বর্তমান পরিস্থিতিতে ভারতে ও চিনের মধ্যে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ সীমারেখা নিয়ে উত্তেজনা রয়েছে। তবে মস্কোতে চিনের সঙ্গে আলোচনার পর দুই দেশই সীমান্ত শান্তিপূর্ণ সহবস্থান করবে বলে জানিয়েছেন। রাজনাথ সিং লোকসভায় স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন পূর্ব লাদাখ সীমান্ত সমস্যা এখনও পর্যন্ত সমাধান হয়নি। আরও আলোচনা প্রয়োজন রয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি আরও বলেন লাদাখে রীতিমত চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে ভারত। 


পূর্ব নির্ধারিত সীমান্ত নিয়ে বেশ কয়েকটি নীতি মানছে না চিন অভিযোগ পূর্ব লাদাখ সীমান্তে এপ্রিল মাস থেকেই  চিনা সেনার সংখ্যা বৃদ্ধি পেতে দেখা গেছে। বেশ কয়েকটি এলাকায় সেনা তৎপরতা দেখা গিয়েছিল। জুন মাসে গালওয়ান ঘাঁটিতে চিনা সেনা ভারতীয় সেনা বাহিনীর জওয়ানদের ওপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ করেন রাজনাথ। পাশাপাশি তিনি জানিয়েছেন, মে মাসেই পূর্ব লাদাখ সেক্টরে প্যাংগং, গোগরাসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় চিনা সেনা প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা লঙ্ঘন করতে চেয়েছিল বলে অভিযোগ। কিন্তু ভারতীয় সেনা বাহিনী চিনা সেনার আগ্রাসন রুখে দিয়েছে। রাজনাথ সিং এদিন ভারতীয় জওয়ানদের ভূয়সী প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ভারতীয় জওয়ানরা যেখানে সংযম রাখার প্রয়োজন সেখানে সংযম রেখেছে। আর যেখানে বীরত্ব প্রদর্শনের প্রয়োজন সেখানে চিনা সেনাকে রুখে দিয়েছেন। 

এদিন সংসদে রাজনাথ সিং রীতিমত চিনা সেনার সমালোনা করেন। তিনি বলেন দীর্ঘ দিন ধরেই চিনা সেনা সীমান্ত নীতি মানছে না। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর এলাকায় গোলাবারুদ মজুত করছে। চিনা সেনার আগ্রাসন প্রতিহত করতে তৈরি রয়েছে ভারতীয় জওয়ানরা। জানিয়েছেন রাজনাথ সিং। তিনি আরও বলেন চিনকে ভারত যোগ্য জবাব দেবে। ভূখণ্ড রক্ষায় সরকার যত্নশীল বলেও দাবি করেছেন প্রতিরক্ষা মন্ত্রী।