অযোধ্য়ার জমি মুসলিম শিয়া ওয়াকফ বোর্ডের নয়। সাফ জানিয়ে দিলেন ভারতের প্রদান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ। সকাল সাড়ে দশটা থেকে অযোধ্য়া মামলার রায় জানাতে শুরু করেছেন প্রধান বিচারপতি। শুরুতেই তিনি জানিয়ে দিয়েছেন অযোধ্যার জমির মালিকানা রয়েছে সুন্নি ওয়াকফ বোর্ডের হাতে। এই বিষয়ে সাংবিধানিক বেঞ্চের পাঁচজন বিচারপতিই একমত হয়েছেন।

শুধু তাই নয়, তিনি আরও জানিয়েছেন কবে মসজিদ গঠন হয়েছিল তাতে কিছু যায় আসে না। কারোর করা যায় না।

নির্মোহি আখড়া রামলাল্লার মন্দিরের সেবায়েৎ হওয়ার যে দাবি জানিয়েছিল তাও খারিজ হয়ে গিয়েছে।

একই সঙ্গে আদালত জানিয়েছে, আদালত কক্ষে হাদিশের ব্যাখ্যা করা যায় না।