জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া আজই বিজেপিতে যোগ দিয়ে পারেন। তেমনই জল্পনা তুঙ্গে মধ্যপ্রদেশের রাজনৈতিক মহলে। সম্ভবত দুপুর বারোটা নাগাদ বিজেপির শীর্ষস্থানীয় নেতাদের উপস্থিতিতে বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন সিন্ধিয়া। অনুগামীদের নিয়ে সিন্ধিয়া কংগ্রেস ছাড়ায় রীতিমত সংকটে কমল নাথ সরকার। তবে দলের শীর্ষ নেতৃত্ব এখনও সামনাসামনি তা স্বীকার করতে চাইছেন না। তাঁদের দাবি আগামী তবে আস্থাভোটে সংখ্য গরিষ্ঠতা প্রমানের বিষয়ে এখনও আশাবাদী কংগ্রেস। নিজেদের বিধায়কদের ধরে রাখতে মরিয়া কমল নাথ। দলের বেশ কিছু বিধায়ককে রাখা হয়েছে জয়পুরের একটি রিসর্টে। 

সূত্রের খবর দুপুর ১২.৩০ নাগাদ জেপিনাড্ডার উপস্থিতিতেই বিজেপিতে যোগ দিতে চান জ্যোতিরাদিত্য সিন্ধিয়া। গতকাল দল ছেড়েছেন সিন্ধিয়া। তবে এখনও পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেননি রাহুল গান্ধি। এদিন সাংবাদিকরা তাঁকে সিন্ধিয়ার দলবদল নিয়ে প্রশ্ন করলেও  কোনও উত্তর না দিয়েই চলে যান কংগ্রেস সাংসদ। কংগ্রেস প্রায় ৯২ জন সাংসদকে জয়পুরের একটি বিলাশবহুল রিসর্টে রেখেছে। মধ্যপ্রদেশ সরকারের তরফ থেকে জানান হয়েছে এই মুহূর্তে সরকার পড়ে যাওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। কারণ  নির্দল বিধায়কদের সমর্থন রয়েছে কংগ্রেসের ওপর। ৬ মন্ত্রীসহ প্রয় ২০ অনুগামী সঙ্গে নিয়েই কংগ্রেস ছেড়েছেন জ্যোতিরাদিত্য।