দিল্লি বিস্ফোরণে খতিয়ে দেখা হচ্ছে সিসিটিভি ফুটেজ। এখন পর্যন্ত পাওয়া সূত্রে খবর যে, বিস্ফোরকে বলবিয়ারিং এবং পেরেক ব্যবহার করা হয়েছিল। চারপাশে পুলিশ যে নমুনা সংগ্রহ করেছে তাতে এটা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে এনআইএ-এর একটি দল। পৌঁছেছে ফরেনসিক টিমও। জানা গিয়েছে, গাড়িতে নয় আব্দুল কালাম রোডের ফুটপাত নম্বর ৩ ও ৫ নম্বরের মাঝে এই বিস্ফোরক রাখা হয়েছিল। দিল্লি পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে যে বিস্ফোরকের তীব্রতা বিশাল কিছু ছিল না। কিন্তু, এই বিস্ফোরণের একদম কাছে কেউ এলে প্রাণহানি ঘটতেই পারত। এক স্থানীয় বাসিন্দা জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের সময় বিশাল আওয়াজ হয়েছিল। সেইসঙ্গে কাঁচ ভাঙার আওয়াজ কানে এসে পৌঁছেছিলো।