ভারতে ক্রমেই বেড়ে চলেছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। একের পর এক আক্রান্তের খবর উঠে আসছে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। শেষ কয়েকদিনে আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির হার বেড়ে যাওয়ায় সকলেরই কপালে চিন্তার ভাঁজ। শনিবার সকাল পর্যন্ত করোনার জেরে ভারতের বুকে আক্রান্তে সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭১। 

করোনার প্রকোপ ঠেকাতে একাধিক পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে দেশ জুড়ে। একাধিক জায়গায় লকডাউন। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে দোকান, শপিংমল, বাজার। এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী মহারাষ্ট্রে সংক্রমণের সংখ্যা সব থেকে বেশি। দিল্লি- ১৭, অন্ধ্রপ্রদেশ- ৩, কেরল- ২৮, মহারাষ্ট্র- ৫২, ওড়িশা- ২, রাজস্থান- ১৭, তামিলনাড়ু- ৩, জন্মুকাশ্মির- ৩, গুজরাত- ৫, ছত্রিশগড়- ৩, পশ্চিমবঙ্গ- ৩। 

আরও পড়ুনঃ পার্টিতে করোনা আক্রান্ত কণিকার সঙ্গে ছেলেকে নিয়ে ছিলেন বসুন্ধরা, আতঙ্কে স্বেচ্ছাবন্দি, তোপ ডেরেকের

আরও পড়ুনঃ দুষ্মন্তের পাশে বসে, সরকারকে দুষে স্বেচ্ছায় কোয়ারান্টাইনে তৃণমূলের ডেরেক

করোনার থাবা থেকে দেশকে রক্ষা করতে এবং সংক্রমণের মাত্রা কমাতে নেওয়া হয়েছে একাধিক পদক্ষেপ। বাতিল করে দেওয়া হয়েছে ৩০০০ ট্রেন। পাশাপাশি ১০০০ বিমানও বাতিল। রবিবার জনতা কার্ফুর ডাক দেওয়া হয়েছে। যার ফলে শনিবার রাত থেকেই বন্ধ থাকতে ট্রেন চলাচল। পাশাপাশি প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে বেরনোতে জারি করা হয়েছে নিষেধাজ্ঞা।