৩০,০০০-এরও নিচে নেমে গেল ভারতের দৈনিক নতুন করোনা রোগীর সংখ্যা। রবি থেকে সোমবারের মধ্যে দৈনিক নতুন রোগীর সংখ্যা ১০,০০০-এর বেশি কমে দাঁড়িয়েছিল ৩০,৫৪৮-তে। আর মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রক জানালো, গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করোনা রোগীর সন্ধান পাওয়া গিয়েছে ২৯,১৬৪ জন। এই নিয়ে একটানা গত ৪৫ দিন ধরে প্রতিদিনই এই দৈনিক রোগীর সংখ্যাটা আগের দিনের থেকে কম হল।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুসারে, মঙ্গলবার সকালে ভারতের মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৮৮,৭৪,২৯১ জন। আর গত ২৪ ঘন্টায় কোভিড জনিত কারণে ৪৪৯ জনের মৃত্যু হওয়ায় ভারতের মোট কোভিড মৃত্যুর সংখ্যা এখন ১,৩০,৫১৯।

ভারতের ৮৮,৭৪,২৯১ জন করোনা রোগীর মধ্যে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৪,৫৩,৪০১ জন। গত ২৪ ঘন্টাতেই এই সংখ্যাটা কমেছে ১২,০৭৭। আর এই সময়কালে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৪০,৭৯১ জন। ফলে ভারতে এখন মোট সুস্থ হয়ে ওঠা করোনা রোগীর সংখ্যা ৮২,৯০,৩৭১ জন।

অন্যদিকে, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিকেল রিসার্চ বা আইসিএমআর জানিয়েছে, ১৬ নভেম্বর পর্যন্ত কোভিড-এর জন্য ভারতে মোট ১২,৬৫,৪২,৯০৭ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে সোমবার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৮,৪৪,৩৩২ টি।

দেশের করোনা হটস্পট এখন আবার দিল্লি। রজধঘানীতে এখনই প্রতি ২০ লক্ষ জনগণের মধ্যে ৩৬১ জন করোনা আক্রান্ত। আগামী করেক দিনে ই সংখ্যাটা ৫০০-তে পৌঁছতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। রাজধানীর করোনা পরিস্থিতি সামলাতে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার যৌথভাবে বেশ কয়েক দফা ব্যবস্থা নিচ্ছে।