গত ১৭ সেপ্টেম্বর ভারতের দৈনিক নতুন করোনা রোগীর সংখ্যা পৌঁছেছিল ৯৭,৮৯৪-এ। সেটাই এখনও পর্যন্ত ভারতে করোনার ডূড়া। তারপর থেকে প্রতিদিনই একটু একটু করে এই সংখ্যাটা কমছিল। ১৭ নভেম্বর অর্থাৎ ১ মাস পরই তা নেমে দাঁড়িয়েছিল ২৯,১৬৩-তে। কিন্তু, তারপর থেকে গত চারদিন ধরে ফের লাফিয়ে বাড়ছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যাটা। শুক্রবার ভারতে নতুন করোনা রোগী পাওয়া গিয়েছে ৪৬,২৩২ জন। যার জেরে ভারতের মোট আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত দৌড়চ্ছে ৯১ লক্ষের দিকে।

আরও পড়ুন - ভ্যাকসিন নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক, তবে কি আর বেশি দূরে নেই কোভিডের টিকা

আরও পড়ুন - করোনাভাইরাসের টিকার দাম ১ হাজার টাকা, অক্সফোর্ডের প্রতিষেধক নিয়ে একগুচ্ছ তথ্য দিলেন সেরাম কর্তা

আরও পড়ুন - জুলাইয়ে ২৫ কোটি মানুষ করোনা প্রতিষেধক পাবেন, আশার আলো দেখালেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী

শনিবার সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রক জানিয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে ৪৬,২৩২ জন নতুন রোগী করোনা আক্রান্ত হিসাবে সনাক্ত হওয়ায় বর্তমানে ভারতের মোট কোভিড রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯০,৫০,৫৯৮-এ। আর এই সময়কালে কোভিড জনিত কারণে মৃত্যু হয়েছে ৫৬৪ জনের। ফলে ভারতে এই পর্যন্ত কোভিডে মৃত্যু হল মোট ১,৩২,৭২৬ জনের।

তবে স্বস্তির কথা দৈনিক আক্রান্তের সংখ্য়াটা বাড়তে থাকলেও, সক্রিয় মামলা অর্থাৎ চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যাটা এখনও ৫ লক্ষের নিচেই রয়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী শনিবার সকাল পর্যন্ত ভারতে চিকিৎসাধীন কোভিড রোগী রয়েছেন ৪,৩৯,৭৪৭ জন। এর অন্যতম কারণ দৈনিক কোভিড রোগীর সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সুস্থতার হারও। স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে গত ২৪ ঘন্টায় হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৪৯,৭১৫ জন। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত কোভিডকে জয় করেছেন ৮৪,৭৮,১২৪ জন।

অন্যদিকে, ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর মেডিকেল রিসার্চ বা আইসিএমআর জানিয়েছে শুক্রবার (২০ নভেম্বর) দেশে মোট ১০,৬৬,০২২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে কোভিডের জন্য। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত ভারতের মোট করোনা পরীক্ষা হয়েছে ১৩,০৬,৫৭,৮০৮টি।