এরর ৫০৩ (Error 503), বিবিসি থেকে নিউ ইয়র্ক টাইমস - ৮ জুন মঙ্গলবার একাধিক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইট খুলতে গেলেই দেখা যাচ্ছিল এই বার্তা। তাহলে কি ভারতে বন্ধ করে দেওয়া হল আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইটগুলি? প্রথমে এরকমই একটা আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল। পরে দেখা গেল, শুধু ,সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইটই নয়, খুলছে না যুক্তরাজ্য সরকারের ওয়েবসাইট, অ্যামাজন ডট কমের মতো জনপ্রিয় গ্লোবাল ওয়েবসাইটগুলিও। তাহলে কি ভারতে কোনও বড়সড় সাইবার হানা হল?   

আরও কিছুটা সময় যাওয়ার পর অবশ্য জানা গেল, শুধু ভারতেই নয়, বিশ্বজুড়েই বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় ওয়েবসাইটের এই এক অবস্থা। এখনও পর্যন্ত যে ওয়েবসাইটগুলি খুলতে গেলে এরর ৫০৩ দেখাচ্ছে বলে জানা গিয়েছে, সেগুলি হল - 'রেডইট', 'দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস', 'বিবিসি নিউজ', 'ফিনান্সিয়াল টাইমস', 'দ্য গার্ডিয়ান', 'ব্লুমবার্গ নিউজ', সিএনএন ইন্টারন্যাশনাল, ওয়াশিংটন পোস্ট, ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল, টাইম ম্যাগাজিন, ভক্স, যুক্তরাজ্য সরকারের ওয়েবসাইট, অ্য়ামাজন ডট কম প্রভৃতি। এই ওয়েবসাইটগুলির হোমপেজ খুলতে গেলেই দেখা যাচ্ছিল 'এরর ৫০৩ সার্ভিস আনঅ্যাভেইলেবল' বার্তাটি। এই ওয়েবসাইটগুলির অনেকগুলিই টুইট করে এই বিষয়টি জানায়।

'এরর ৫০৩' বার্তাটি সাধারণত ওয়েব সার্ভারে কোনও সমস্যা হলে দেখানো হয়। সাধারণত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বা অতিরিক্ত চাপ পড়লে কোনও সার্ভার ডাউন হয়ে যেতে পারে। সেই ক্ষেত্রে এমন বার্তা আসে। কিন্তু, এই ক্ষেত্রে ঠিক কী ঘটেছে তা তাত্ক্ষণিকভাবে পরিষ্কার হয়নি। 'এরর ৫০৩' বার্তাটি সাধারণত ওয়েব সার্ভারে কোনও সমস্যা হলে দেখানো হয়। সাধারণত রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বা অতিরিক্ত চাপ পড়লে কোনও সার্ভার ডাউন হয়ে যেতে পারে। সেই ক্ষেত্রে এমন বার্তা আসে। কিন্তু, এই ক্ষেত্রে ঠিক কী ঘটেছে তা তাত্ক্ষণিকভাবে পরিষ্কার হয়নি। তবে বিশ্বজুড়ে কোনও সাইবহার হামলা নয়, মনে করা হচ্ছে ওয়েবসাইটগুলির সিডিএন প্রোভাইডার ক্র্যাশ করাতেই এই বিভ্রাট ঘটেছে।

 

এটি ব্রেকিং নিউজ বিস্তারিত আসছে...