আবারও ভয়াবহ ট্রেন দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল বাংলাদেশ। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দু'টি ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু হল অন্তত পনেরো জনের। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। 

স্থানীয় কয়েকটি সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, মঙ্গলবার ভোররাত তিনটে নাগাদ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। জানা গিয়েছে, সিলেট থেকে চট্রগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় ঢাকাগামী তুর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেসের। রেল কর্তৃপক্ষ প্রাথমিক ভাবে জানিয়েছেন, ঘটনাস্থলেই বারোজন যাত্রীর মৃত্যু হয়। পরে আরও তিনজন মারা যান। দু'টি ট্রেনেরই দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া বগিগুলির মধ্যে আরও যাত্রীর দেহ আটকে থাকতে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। কামরাগুলি এতটাই ক্ষতিগ্রস্ত যে আটকে পড়া যাত্রীদের উদ্ধার করতেও বেগ পাচ্ছেন উদ্ধারকারী দলের সদস্যরা। আহতদের উদ্ধার করে নিকটবর্তী হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। 

দুর্ঘটনায় বেশি ক্ষতি হয়েছে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেসের। চট্রগ্রামগামী ট্রেনটি যখন আখুয়ারা জংশন স্টেশনের কাছে লাইন পরিবর্তন করছিল, তখনই তীব্র গতিতে এসে তাকে ধাক্কা মারে ঢাকাগামী তুর্ণা নিশিতা এক্সপ্রেস।