সঙ্গম ছাড়াই শুধু মাত্র পুরুষদের সঙ্গে একসঙ্গে সাঁতারের পুলে নামলেই গর্ভবতী হয়ে পড়তে পারেন মহিলারা। এমনই এক উদ্ভট দাবি করলেন ইন্দোনেশিয়ার এক শিশু অধিকার রক্ষা বিভাগের আধিকারিক। পরে অবশ্য তিনি তাঁর মন্তব্য ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হন। তার আগেই অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

স্থানীয় এক সংবাদমাধ্যম ট্রিবিউন জাকার্তা-য় এক সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে সিতি হিকমাওয়াত্তি নামে ওই কর্মকর্তা বলেন, মেয়েদের বিশেষত অল্পবয়সী মেয়েদের পুরুষদের সঙ্গে একসঙ্গে সাঁতারের পুলে না নামাই ভালো। কারণ, এক ধরণের বিশেষত শক্তিশালী শুক্রাণু রয়েছে, যার থেকে সুইমিং পুলে সাঁতার কাটতে গিয়েই কোনও মহিলা গর্ভাবতী হয়ে পড়তে পারেন।

তিনি বলেন, সুইমিংপুলে মহিলারা সঙ্গে থাকলে পুরুষরা যেকোনও সময়ই কামনার বশবর্তী হতে পারেন এবং তাদের বীর্যপাত হতে পারে। এতে গর্ভাবস্থার সম্ভাবনা থেকে যায়। মহিলারা সক্রিয় যৌনজীবনে থাকেন তবে তাঁদের গর্ভাবস্থা হতেই পারে। আর সুইমিং পুলে পুরুষরা নারীদের দেখে কীভাবে প্রতিক্রিয়া জানাবে তা তো কেউ নিশ্চিতভাবে বলতে পারে না।
 
এরপরই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন সিতি হিকমাওয়াত্তি। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁকে নিয়ে শুরু হয়েছে ব্যঙ্গ বিদ্রুপ। ইন্দোনেশিয়ান চিকিৎসকরাও তাঁর এই বক্তব্যকে সম্পূর্ণ আজগুবি বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁরা বলেছেন, কোনও মহিলার পক্ষে এইভাবে গর্ভবতী হওয়া অসম্ভব। ইন্দোনেশিয়ান ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন সরকারিভাবে ওই কর্মকর্তা মন্তব্যের সমালোচনা করেছে।


 
চারিদিক থেকে সমালোচনার মুখে পড়ে তিনি তাঁর এই মন্তব্য প্রত্যাহার করে নেন। সিতি হিকমাওয়াত্তি বলেন, তাঁর ওই মন্তব্যটি ভুল ছিল। এটা একেবারেই তাঁর ব্যক্তিগত মতামত, এরসঙ্গে ইন্দোনেশিয় শিশু সুরক্ষা কমিশন-এর কোনও যোগ নেই। এই মন্তব্য করার জন্য তিনি ক্ষমাও চেয়েছেন। সেই সঙ্গে হিকমাওয়াত্তি জানিয়েছেন এটা একেবারেই তাঁর অজ্ঞতার কারণে হয়েছে। এর জন্য তিনি লজ্জিত।