ভাগার কান্ডে রায় দিল আদালত। বনগাঁ আদালতের এদিন আটজন অভিযুক্তের মধ্যে ছয়জনকে বেকসুর খালাস করে দেয়।

এই কাণ্ডে মোট আটজন অভিযুক্ত থাকলেও বনগাঁ এলাকার দুই রেস্টুরেন্ট মালিক ভাগাড় কাণ্ডে জামিনে বাইরেই ছিলেন।
 
বুধবার বনগাঁ আদালতের এডিজি ওয়ান বিদ্যুৎ রায় রায় ছয় জন অভিযুক্তকে বেকুসুর খালাস করে দেন। বনাগাঁর দুই রেস্টুরেন্ট মালিক জামিন নিয়ে বাইরে থাকলেও আদালতে হাজিরা দিচ্ছিলেন না। বিচারক অভিযুক্ত অন্য দু'জনকে পাঁচ বছরের জেল অনাদায়ে এক লক্ষ টাকা জরিমানা করেন।

এই কাণ্ডের মূল অভিযুক্ত মাংস বিশু বনগাঁ আদালতে জামিন পেয়েছে। যে ট্যাক্সিচালক ধরা পড়েছিল সে ও জামিন পেয়েছে। বনগাঁর যে দুই হোটেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, সেই হোটেল মালিকের সাজা হয়েছে। এদিন ওই ট্যাক্সিচালকের স্ত্রী আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তিনি বলেন, লোকসভা ভোটে নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় এসেছে বলেই ভাগাড় কাণ্ডে মুক্তি পেলেন ওই ড্রাইভার। তাঁর আরও দাবি, তার স্বামীকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসানো হয়েছিল।