আরজিকর হাসপাতালে ছাদ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা চিকিৎসকের। সূত্রের খবর, শুক্রবার সকালে এক জুনিয়র মহিলা ডাক্তার আত্মহত্যা করেন কলকাতার ওই হাসপাতালে। এমার্জেন্সি বিভাগের ক্যাজুয়ালিটি ব্লকের উপর থেকে ওই ছাত্রী পড়ে যেতে দেখেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় পৌলমী সাহা  নামে পিজিটি-র ওই ছাত্রীর।

আরও পড়ুন, মেয়ের দেহ আগলে একা বসে রইলেন অসহায় মা, প্রতিবেশীরা করোনা-আতঙ্কে দিলেন দরজা বন্ধ করে


করোনা জেরে রাজ‍্যে জুড়ে আতঙ্ক ছড়িয়েছে। শুক্রবার প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছে, আর জি কর মেডিক্যাল হাসপাতালে এক মহিলা চিকিৎসক ১১ তলা থেকে ঝাঁপ দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয় পৌলমী সাহা নামে বছর পঁচিশের পিজিটি-র ওই ছাত্রীর। এদিন পৌলমী ফিভার ক্লিনিকে ডিউটিতে ছিলেন। হঠাৎ এমার্জেন্সি বিভাগের ক‍্যাঞ্জুয়ালিটি ব্লক থেকে একটা কিছু পড়ে যাওয়ার শব্দ শুনেছিলেন। জানা গিয়েছে, করোনা চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত থাকায় বেশ কিছু দিন মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই চিকিৎসক। 

 

 

আরও পড়ুন, ফুটপাতে রোগী ফেলে পালানোর চেষ্টা পিপিই বেশধারী স্বাস্থ্যকর্মীদের, দেখুন ভিডিও

 

অপরদিকে, জানা গিয়েছে, পুলিশ  দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। তবে এটি আত্মহত্যা নাকি, এর পেছনে অন্য কোন কারণ লুকিয়ে আছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। তবে ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে এলে তবে আসল কারণ জানা যাবে।

আরও পড়ুন, সাগর দত্ত মেডিক্যালে করোনা আক্রান্ত ২ সাফাই কর্মী, ২০ জন চিকিৎসক সহ ৩৬ জন কোয়ারেন্টিনে

 

 

রাজ্য়ে একাধিক করোনা রিপোর্ট 'ফলস' নেগেটিভ, কী বলছেন চিকিৎসকরা

রিপোর্ট 'নেগেটিভ' -পাঠানো হল বাড়ি, ভূল থাকায় ফের ডাক, বাঙ্গুর হাসপাতালে মৃত্যু করোনা আক্রান্তের

স্ক্রিন ছুঁয়েই প্রিয় জনের অনুভূতি, করোনা রুখতে শহরের হাসপাতালে চালু 'ভারচুয়াল ভিজিটিং আওয়ার্স'

এবার বেসরকারিতেও করোনা চিকিৎসায় মিলবে বিনামূল্য়ের পরিষেবা, হাস