ফের করোনার কোপ কলকাতায়। এবার  করোনা আক্রান্ত বেড়ে ৩ হল। স্কটল্যান্ড থেকে সম্প্রতি রাজ্য়ে ফেরেন ওই তরুণী ৷ করোনা আক্রান্ত ওই তরুণী উত্তর ২৪ পরগনার হাবড়ার বাসিন্দা ৷ বিদেশ থেকে ফিরে আইসোলেশনে ছিলেন হাবড়ার ওই তরুণী৷ শুক্রবার গভীর রাতে তাঁর লালারস পরীক্ষার রিপোর্ট আসে৷ রিপোর্টে হাবড়ার বাসিন্দার করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে৷ এই মুহূর্তে তাঁকে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে৷

আরও পড়ুন, ৬ মাস বিনামূল্য়ে রেশন দেবে রাজ্য়, করোনা আতঙ্কে ঘোষণা মুখ্য়মন্ত্রীর

 সূত্রের খবর, এবার মারণ করোনায় আক্রান্ত হাবড়ার বাসিন্দা৷ এই মুহূর্তে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ভর্তি স্কটল্যান্ড ফেরত ওই তরুণী৷ তবে ওই তরণী দায়িত্বশীল নাগরিকের পরিচয় দিয়েছেন। স্কটল্য়ান্ড থেকে ফিরেই সোজা আইডি হাসপাতালে ভর্তি হন। কলকাতার বাকি ২ করোনা আক্রান্তের সঙ্গেই ওই তরুণীকেও আইডি হাসপাতালের স্পেশাল আইসোলেশন ওয়ার্ডে রাখা হয়েছে৷  আক্রান্তের লালারস পরীক্ষার রিপোর্ট শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টা নাগাদ নাইসেড থেকে এসে পৌঁছোয়৷ দ্রুত তাঁকে আইডি হাসপাতালের স্পেশাল আইসোলেশন ওয়ার্ডে নিয়ে যাওয়া হয়৷

আরও পড়ুন, দ্বিতীয় করোনা আক্রান্তও শহরে ঘুরলেন বেপরোয়াভাবে, আতঙ্কে কাঁটা কলকাতাবাসী

অপরদিকে শুক্রবার ইংল্যান্ড ফেরত লেক রোডের এক যুবকের দেহে করোনা ভাইরাসের সন্ধান পাওয়া যায়। সেই যুবক বেপরোয়াভাবে মতো শহরে ঘুরেছিল বলে অভিযোগ করে তাঁর আবাসনের বাসিন্দারা। শুক্রবার রাত পর্যন্ত দেশে ২২৩ জনের শরীরে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গিয়েছে৷ এবং তারই মধ্য়ে রাজ্য়েরই তিনজন আছেন। এই পরিস্থিতিতে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা সন্দেহ হলে বা করোনা আক্রান্ত হলে প্রত্য়েকেই যেন হাসপাতাল অথবা বাড়িতে অবশ্যই কোয়েরেন্টাইন বা গৃহবন্দি থাকেন। যদি এই নিয়ম কেউ না মেনে চলেন, তাহলে ফোর্স কোয়েরেন্টাইন করবে রাজ্য।  

আরও পড়ুন, 'চাইনিজ-নেপালিজ' তোমরা রোগ নিয়ে এসেছ, ফেসবুকে ভাইরাল কলকাতার জাতি বিদ্বেষ