রবিবার সাতসকালে দুঃসংবাদ। শহরে ফের আগুন।  জ্যোতিষ জয়ন্ত শাস্ত্রীর বাড়িতে আচমকাই আগুন লাগল। উপস্থিত দমকলের ইঞ্জিন। তবুও বাঁচানো গেল না সকলের ভবিষ্যত বলা জ্যোতিষ জয়ন্ত শাস্ত্রীকে।  

আরও পড়ুন, কারা পাবেন প্রথম দফার করোনা ভ্যাকসিন, ২৫ হাজার নাম জমা পড়ল স্বাস্থ্যভবনে

 

শরীরের ৫০ ভাগই আগুনে পুড়ে গিয়েছে


রবিবার সকালে কেষ্টপুরে নিজের বাড়িতেই ছিলেন জ্যোতিশ সম্রাট জয়ন্ত শাস্ত্রী। সেই সময়ই দোতালার ঘরে আগুন লাগে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে দমকলের দুটি ইঞ্জিন। এরপরেই উদ্ধার করা হয় অগ্নিদগ্ধ জ্যোতিষ জয়ন্ত শাস্ত্রীর দেহ। নিয়ে যাওয়া হয় বাইপাসের ধারে এক হাসপাতালে। কিন্তু ততক্ষণে সব শেষ। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, জ্যোতিষ জয়ন্ত শাস্ত্রীর শরীরের ৫০ ভাগই আগুনে পুড়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন, একদিনে রেকর্ড সংক্রমণ কলকাতায়, করোনায় সুস্থতার হার বাড়ল রাজ্য়ে

 

মৃত্যুর আগে তবে কি দেখতে পেয়েছিলেন এই ভয়ানক ভবিষ্যতটা


কেষ্টপুরের বারোয়ারি তলার বাড়িতে সকালেই আগুন দেখেন প্রতিবেশিরা। কিছু বুঝে ওঠার আগেই ততক্ষণ দাউদাউ করে জ্বলছে দোতালার ঘর। এরপরেই আসে দমকলের ইঞ্জিন। রীতিমত যুব্ধকালীন তৎপরতায় আগুন নেভানো কাজ চলে। সাহায্য করেন প্রতিবেশিরাও। তবুও সকলের ভবিষ্যত বলে দেওয়া জ্যোতিশ সম্রাট জয়ন্ত শাস্ত্রী তবে কি দেখতে পেয়েছিলেন এই ভয়ানক ভবিষ্যতটা, অনেকের মনেই এই প্রশ্ন উঠেছে।