কলকাতা পুলিশের পরে এবার বিধান নগর পুলিশ কমিশনারেট। করোনাতে আক্রান্ত হয়েছেন এক মহিলা কনস্টেবল। ওই কনস্টেবল বিধান নগর উত্তর থানায় কর্মরত ছিলেন। সোমবার তাঁকে সল্টলেকের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন, পিপিই-মাস্ক পাচ্ছেন না, বিক্ষোভে কাজ বন্ধ করলেন আরজি করের ২০০ জুনিয়র ডাক্তার
 

পুলিশ সূত্রে খবর,  গত ৫ দিন আগে ওই মহিলা কনস্টেবলের জ্বর আসে। এরপর থেকেই কোয়ারেন্টাইন সেন্টার ছিলেন ঐ কনস্টেবল। করোনা উপসর্গ আসায় এরপর তার শারীরিক পরীক্ষা করা হয়। সোমবার তাঁর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর আজই তাঁকে সল্টলেকের আমরি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এখনও পর্যন্ত কারা কারা ওই মহিলা কনস্টেবলের সংস্পর্শে এসেছেন দ্রুত তার তালিকা বানানো হচ্ছে। তবে একের পর এক করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবরে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে পুলিশ প্রশাসনেও।

আরও পড়ুন, এনআরএসের বেবি নার্সারিতে নার্সের করোনা, শিশুদের নিয়ে চিন্তায় হাসপাতাল


অপরদিকে   নতুন করে কলকাতা পুলিশে ১০ জনের মধ্যে সংক্রমণের আশঙ্কা করা হচ্ছে।  সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত কলকাতা পুলিশে ৫০ জনেরও বেশি আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তাঁদের হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। গত ৭ তারিখ থেকে ৯ মে-এই তিন দিনের মধ্যে ৯ জন পুলিসকর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁদের মধ্যে বালিগঞ্জ থানার এসডিও, মানিকতলা থানার সাব ইন্সপেক্টর, ইস্টার্ন সাবার্বান ডিভিশনের ডিআরও, ময়দান থানার কনস্টেবল আর কয়েকজন হোমগার্ড, সিভিক ভলেন্টিয়ার রয়েছেন। এদিকে, জোড়াবাগান ট্রাফিক গার্ডও সংক্রামিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। জোড়াবাগান থানার অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর, কয়েকজন কনস্টেবলের মধ্যে উপসর্গ রয়েছে। এছাড়াও কলকাতা পুলিশের আরও অনেককেই হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।
 

 

 

সংক্রমণ বেড়েই চলেছে কলকাতায়, কন্টেইনমেন্ট জোন ছুঁল ৩৩৮

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারালেন এবার রাজ্যের এক আইনজীবী, এদিকে আইসোলেশনে তাঁর স্ত্রী