রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদন মঞ্জুর করল কলকাতা হাইকোর্ট। ফলে দুর্গা পুজোর আগে স্বস্তি পেলেন রাজ্যের এডিজি সিআইডি রাজীব কুমার। গতে প্রায় একমাস ধরে একের পর এক আদালতে আবেদনের পরে অবশেষে সারদা কাণ্ডে স্বস্তি পেলেন পুলিশকর্তা। পঞ্চাশ হাজার টাকার দু'টি ব্যক্তিগত বন্ডে আগাম জামিন মঞ়্জুর হয়েছে। বিচারপতি শইদুল্লা মন্সি এবং বিচারপতি শুভাশিস দাশগুপ্তর ডিভিশন বেঞ্চ এ দিন এই নির্দেশ দিয়েছে। 

আদালত অবশ্য এ দিন বেশ কয়েকটি শর্ত দিয়েছে রাজীব কুমার এবং সিবিআই-কে। প্রথমত, কলকাতা পুলিশ এলাকার বাইরে বেরোতে পারবেন না রাজীব কুমার। একই সঙ্গে প্রয়োজনে সিবিআই রাজীবের কলকাতার সম্পত্তির বাজেয়াপ্ত করার মতো পদক্ষেপও করতে পারবে। হাজিরা দেওয়ার জন্য রাজীব কুমারকে অন্তত আটচল্লিশ ঘণ্টা আগে নোটিশ দিতে হবে বলেও এ দিন সিবিআই-কে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

চারদিনের রুদ্ধদ্বার শুনানির পরে এ দিন এই রায় দিল আদালত। এই রায় নিঃসন্দেহে সিবিআই-এর কাছে বড় ধাক্কা। কারণ গত কয়েকদিন ধরেই রাজীব কুমারকে ধরার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছিল সিবিআই। সারদা কাণ্ডে রাজীবকে অভিযুক্ত বলে উল্লেখ করেও আদালতে জানিয়েছিল সিবিআই। রাজীব কুমার পলাতক বলেই দাবি করেছিল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। আলিপুর আদালতও রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবদেন খারিজ করে দিয়েছিল। তার পরে কলকাতা হাইকোর্টের এ দিনের নির্দেশ সিবিআই-এর সেই সমস্ত তৎপরতাতেই ধাক্কা দিল।

দুই বিচাপরপতির ডিভিশন বেঞ্চ এ দিন জানিয়ে দিয়েছে, রাজীব 

যদিও, এই রায়ের বিরুদ্ধে সিবিআই সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করতে পারে বলেই সূত্রের খবর। ইতিমধ্যেই তার জন্য আইনি পদক্ষেপ নিতে শুরু করেছে তারা।