কলকাতার সেন্ট্রাল মেডিক্যাল স্টোরের অন্যতম শীর্ষ স্বাস্থ্যকর্তার শরীরে মিলেছে ভাইরাস। তাঁকে ইতিমধ্যেই ভরতি করা হয়েছে বেলেঘাটা আইডিতে। এদিকে এই সেন্ট্রাল মেডিক্যাল স্টোরেই মজুত থাকে করোনা মোকাবিলার যাবতীয় সরঞ্জাম।আর এবার সেই মেডিক্য়াল স্টোরের স্বাস্থ্যকর্তার শরীরে মিলেছে করোনা ভাইরাস। রীতিমত চিন্তায় প্রশাসন।

আরও পড়ুন,'রেশন-ব্যবস্থায় রাজনৈতিক দখল একটি অপরাধ', টুইটারে ক্ষোভ প্রকাশ রাজ্যপালের

সূত্রের খবর, জ্বর, সর্দি-কাশিতে ভুগছিলেন কলকাতার সেন্ট্রাল মেডিক্যাল স্টোরের এই অন্যতম শীর্ষ স্বাস্থ্যকর্তা। এরপরই তাঁর নমুনা পরীক্ষা করা হয়। করোনা পরীক্ষায় রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তিনি এই মুহূর্তে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তবে এদিকে এই সেন্ট্রাল মেডিক্যাল স্টোরেই মজুত থাকে পিপিই, মাস্ক, স্যানিটাইজার-সহ করোনা মোকাবিলার যাবতীয় সরঞ্জাম। এখান থেকেই রাজ্য়ের বিভিন্ন হাসপাতাল, মেডিক্যাল স্টোরে পৌঁছে যায় এই সকল সামগ্রী। আর এবার সেই মেডিক্য়াল স্টোরের স্বাস্থ্যকর্তার শরীরে মিলেছে করোনা ভাইরাস। যার জেরে সবদিক থেকেই রীতিমত চিন্তায় প্রশাসন।

আরও পড়ুন, চিকিৎসা চলাকালীনই এক ব্যক্তির মৃত্যু টাটা মেডিক্যালে, কারণ খতিয়ে দেখতে রাজ্য়ের বিশেষজ্ঞ কমিটি

অপরদিকে, ওই স্বাস্থ্যকর্তা সম্প্রতি কার কার সংস্পর্শে এসেছিলেন , তারও খোঁজ শুরু করেছে স্বাস্থ্যদপ্তর।  যাঁরা আক্রান্তের সংস্পর্শে এসেছিলেন, তাঁরা রীতিমতো চিন্তায়। উল্লেখ্য়, এর আগে রাজ্যের চিকিৎসক, নার্স, হাসপাতালের সুপার করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। কিন্তু  কোনও স্বাস্থ্যকর্তাকে করোনাভাইরাসে সংক্রামিত হননি।  

 

 করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্য়ু ক্যানসার রোগীর,আতঙ্ক ছড়াল রাজারহাটের হাসপাতালে

করোনা আক্রান্ত গার্ডেনরিচ থানার শীর্ষ আধিকারিক, স্বাস্থ্য ভবনের তরফে চূড়ান্ত সতর্কতা

কেন্দ্র বলছে ২৮৭, বাংলার হিসেবে রাজ্য়ে করোনা আক্রান্ত ১৬২