করোনা রুখতে লকডাউন। এদিকে লকডাউনের জেরে শুক্রবার সাতসকালে এক দুঃস্থ ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছেন বলে অভিযোগ। ঘটনাটি ঘটেছে সাউথ পোর্ট থানার ৫ নম্বর ভুকৈলাস রোডে। এলাকাবাসীদের থেকে খবর পেয়েই সাউথ পোর্ট থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। ইতিমধ্য়েই মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের  জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

আরও পড়ুন, লকডাউনের সময়ে জটলা ভাঙতে কোথাও লাঠিচার্জ, কোথাও-বা কানধরে ওঠবোস


  শুক্রবার সাতসকালে সাউথ পোর্ট থানার ৫ নম্বর ভুকৈলাস রোডে, এলাকার কিছু লোক মর্নিং ওয়াক -এ বের হয়। তখন দেখে রাস্তার ধারে এক ব্যক্তি পড়ে আছে। এরপর তারাই গিয়ে চিনিতে পারে ওই লোকটিকে। বছর তেতাল্লিশের ওই ব্যক্তি নাম বিকাও চোধুরী। জানা গিয়েছে, তিনি হোটেলে কাজ করত এবং সেখানেই খাবার পেত। কিন্তু লকডাউনের ফলে কাজ বন্ধ থাকে। ফলে স্থানীয়দের সন্দেহ খাবার না পেয়ে মৃত্যু হয়েছে ওই ব্যক্তির।

আরও পড়ুন, সংকটজনক নয়াবাদের করোনা আক্রান্ত, অক্সিজেনের মাত্রা কমেছে অস্বাভাববিক

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এমনিতে রাজ্য় তথা দেশ জুড়ে লকডাউন চলছে। যার জেরে জরুরী পরিষেবাও একাংশ প্রভাবিত হয়েছে। বাজারে আমদানি কম হচ্ছে। রাস্তাঘাটেও লোকজন খুব প্রয়োজন ছাড়া বেরোচ্ছে না।যার জেরে শহরের অনেক দুঃস্থ মানুষকেই ভুগতে হচ্ছে। তবে সব ক্ষেত্রে চিত্রটা এক নয়, কোথাও কোথাও পুলিশের নজরে আসলে তাঁরাই দুঃস্থদের জন্য় খাবার বিতরণ করছে। তবে এই ঘটনায় এলাকাবাসী শোকাহত।  এলাকাবাসীই সাউথ পোর্ট থানাকে খবর দিলে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে। ময়নাতদন্তের  জন্য পাঠায়। তবে ময়নাতদন্তের পরেই জানা যাবে মৃত্যুর আসল কারণ। খাবার না পাওয়ার জন্য় নাকি কোনও রোগের কারণে মৃত্য়ু হয়েছে ওই ব্য়ক্তির। এই ঘটনায় সাউথ পোর্ট থানা এলাকায় রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

আরও পড়ুন, এবার নিজের খরচে হোটেলেও থাকা যাবে কোয়রান্টিনে, জানাল স্বাস্থ্য দফতর