রাজ্য়ে করোনার উত্তাপের মাঝেই আগুন আতঙ্ক। সোমবার সপ্তাহ শুরুর দিনেই ভবানীপুরের বহুতলে বিধ্বংসী আগুন। জানা গিয়েছে, ধোঁওয়ায় দম বন্ধ করা পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে আবাসনবাসীর। ইতিমধ্য়েই এলাকায় পৌঁছে গিয়েছে দমকলের ১০টি ইঞ্জিন। আনা হয়েছে হাইড্রোলিক ল্যাডার। যে তলায় আগুন লেগেছে তার বাসিন্দাাদের উদ্ধারে নেমেছে দমকল। সাত সকালে আগুনে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে এলাকায়।

জ্বর নিয়েই ট্রেন করে একটানা অফিস, ভয়ে কাঁটা রাজ্য়ের করোনা আক্রান্তর সহকর্মীরা.

জানা গিয়ছে, আবাসনের ১৭ তলায় আগুন লেগেছে। ভয়াবহ আগুনে খসে পড়ছে ঘরের একের পর এক জানালা। আবাসনের নিজস্ব আগুন নির্বাপণ ব্য়বস্থা কাজ করেনি কেন তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। হাইড্রোলিক ল্য়াডারের একস্টেনশন করে আগুন নেভানোর চেষ্টা চলছে। কিন্তু উচ্চতা নিয়ে সমস্যা হচ্ছে দমকল বাহিনীর। নীচের তলার বাসিন্দারা বেরিয়ে এসেছেন আবাসনে বাইরে। কিন্তু আগুন ক্রমশ ওপরের দিকের তলাগুলি গ্রাস করছে। 

রাজ্যে আরও এক করোনা আক্রান্তের হদিশ,সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ২২

ইতিমধ্য়েই বেশকিছু বাসিন্দাকে নামিয়ে আনতে পরেছে দমকল বাহিনী। তবে আরও কেউ ওই নির্দিষ্ট তলায় আটকে আছেন কিনা তা দেখা হচ্ছে। আগুনের ভয়াবহতা জানতে পেরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়েছেন খোদ  দমকলের ডিজি।  প্রবল হাওয়ার কারণে ক্রমশই ছড়িয়ে পড়ছে আগুন। এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন সকাল সওয়া দশটা নগাদ প্রথম আগুন লাগে।

সুস্থ রাজ্য়ের তিন করোনা আক্রান্ত, বুকে বল পেল রাজ্য়বাসী..