নন্দীগ্রাম মামলায় গুরুত্বপূর্ণ নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্ট। নির্বাচন কমিশনকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কাগজপত্র আর ভোটদানের মেশিনগুলি সংরক্ষণ করতে।এই মামলার পরবর্তী শুনানি হবে আগামী ১২ অগাস্ট। কলকাতাই কোর্টের বিচারপতি শম্পা সরকার এই নির্দেশ দিয়েছেন। বুধবার অনলাইন শুনানির সময় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদন বৈধ বলেও জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। এদিন কলকাতা হাইকোর্ট শুভেন্দু অধিকারীকেও নোটিশ জারি করা হয়েছে। 

কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়েছে নন্দীগ্রামের ইভিএম, নথি ,ভিডিও রেকর্ডিং সহ নির্বাচনের যাবতীয় নথি সংরক্ষণ করতে হবে। নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসার আর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিককেও নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আদালত জানিয়েছে নির্বাচন কমিশনের আর রিটার্নিং অফিসারদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পরবর্তী শুনানি হবে আগামী ১২ অগাস্ট। 


বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রামে পরাজিত হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। তারপরই বিজেপি বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারীকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে দ্বারস্থ হয়েছিলেন কলকাতা হাইকোর্ট। প্রথমে এই মমলা ওঠে, কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি কৌশিক চন্দের এজলাসে। কিন্তু তাঁর সঙ্গে বিজেপির যোগ রয়েছে এই অভিযোগ তুলে মামলা অন্য বেঞ্চে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার আর্জি জানিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের আইনজীবী। তবে তাতে রাজি হননি বিচারপতি। তিনি আগের শুনানিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে পাঁচ লক্ষ টাকা জরিমানা করে তারপরই মামলা থেকে সরে দাঁড়ান। তাপরই মামলা চলে যায় শম্পা সরকারে অধীনে। 

বিস্তারিত আসছে...