সোমবার থেকে পাড়ার কমপ্লেক্স বাদে ছোট দোকান খোলা যাবে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। সামাজিক দূরত্ব মেনে গ্রিন জোনগুলিতে পাড়ায়-পাড়ায় ছোট দোকান খোলা যাবে। কিন্তু কোনও মতেই সেখানে বাড়তি ভিড় করা যাবে না।  বুধবার নবান্নে এমনটাই জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

আরও পড়ুন, রাজ্য়ে একাধিক করোনা রিপোর্ট 'ফলস' নেগেটিভ, কী বলছেন চিকিৎসকরা

করোনা রুখতে দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। দীর্ঘ লকডাউনে  বিশেষ করে ছোট দোকান গুলি বন্ধ হওয়ায় রোজগার হারিয়েছেন অনেকে। আবার লকডাউনের জেরে রাজ্যের বহু মানুষ নানা সমস্য়ায় পড়েছেন। তাই রাজ্যের আর্থিক পরিস্থিতির পর্যালোচনায় টাস্ক ফোর্স গড়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। টাস্ক ফোর্সের সুপারিশ মেনেই সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী সোমবার থেকে রাজ্যের গ্রিন জোনগুলিতে মার্কেটে কমপ্লেক্সে নয় এমন ছোট দোকান খোলা যাবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন, রিপোর্ট 'নেগেটিভ' -পাঠানো হল বাড়ি, ভূল থাকায় ফের ডাক, বাঙ্গুর হাসপাতালে মৃত্যু করোনা আক্রান্তের

সোমবার থেকেই পাড়ার হার্ডওয়ার, মোবাইল রিচার্জের দোকান, বই, রং, চা, পানের দোকান ও লন্ড্রী খোলা যাবে। ছোট দোকান খোলা গেলেও ফুটপাতে হকারদের এখনই বসার অনুমতি দেওয়া হয়নি।  তবে দোকান খুললেও ক্রেতা ও বিক্রেতাকে মুখে মাস্ক পরে ও সামাজিক দূরত্ব মেনেই দোকানে গিয়ে কাজ করতে হবে। উল্লেখ্য়,এখনও সেলুন খোলা যাবে না বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

 

 

 

রাজ্য়ে মৃত বেড়ে ২২, বাংলায় করোনা আক্রান্ত ৫২২

চিন থেকে সোজা কলকাতা বিমানবন্দরে, ১০ টন করোনা-চিকিৎসার সামগ্রী নিয়ে শহরে নামল উড়ান

স্ক্রিন ছুঁয়েই প্রিয় জনের অনুভূতি, করোনা রুখতে শহরের হাসপাতালে চালু 'ভারচুয়াল ভিজিটিং আওয়ার্স'

বাবুলের কথা এবার চিকিৎসক সংগঠনের মুখে,করোনায় মৃত্যু স্বাস্থ্য়কর্তার -স্বীকার করুক রাজ্য

এবার বেসরকারিতেও করোনা চিকিৎসায় মিলবে বিনামূল্য়ের পরিষেবা, হাসপাতালের খরচও দেবে রাজ্য সরকার