করোনার জেরে বাড়ির লোকের সঙ্গে দেখা করা এবং কথা বলা বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিবাদে সকাল থেকেই দফায় দফায় উত্তাল হয়ে ওঠে দমদম সেন্ট্রাল জেল । ইতিমধ্যেই জেলের কয়েদি বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং জেল কর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাধে। বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে অবস্থা নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে।

আরও পড়ুন, ৬ মাস বিনামূল্য়ে রেশন দেবে রাজ্য়, করোনা আতঙ্কে ঘোষণা মুখ্য়মন্ত্রীর

  সূত্রে জানা গেছে, জেলের ভেতরে মারমুখী বিচারাধীন এবং সাজাপ্রাপ্ত আসামীরা জেলের ভেতর দরজা জানালা ভেঙে আগুন ধরিয়ে দেয়। ভাঙচুর চালায় যথেচ্ছভাবে। প্রথমে মারমুখী আসামিদের বাগে আনতে পারেনি জেল পুলিশ। পরে বাইরে থেকে বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে অবস্থা নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। শূন্যে গুলি চালায় বলে অভিযোগ । আসামীদের পরিবারের অভিযোগ পুলিশের এলোপাথাড়ি ছোড়া  গুলিতে বেশ কয়েকজন বন্দীর আহত হওয়ার খবর আছে। তাদেরকে জেলের ভিতর যে হাসপাতাল রয়েছে সেই হাসপাতালেই চিকিৎসা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন, দ্বিতীয় করোনা আক্রান্তও শহরে ঘুরলেন বেপরোয়াভাবে, আতঙ্কে কাঁটা কলকাতাবাসী

করোনার কোপে এই মুহূর্তে রাজ্য় সহ দেশ তোলপাড়। বিশেষ করে রাজ্য়ে করোনার আরও ৩ জন করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর আরও বেশি করে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে যেকোনও জমায়েতের বিরুদ্ধেই। কারণ তা থেকে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন ছড়াতে পারে। এদিকে এই পরিস্থিতিতে দমদম জেলের কয়েদিরা বাড়ির লোকের সঙ্গে দেখা করতে না পারায়, তারা রীতিমত  বিক্ষোভে ফেটে পড়েন এবং জেল কর্মীদের সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বাধে।সংঘর্ষের মাঝে সুযোগ বুঝে জেল থেকে বেশ কয়েকজন আসামির পালিয়ে যাওয়ার খবরও পাওয়া যাচ্ছে । তবে জেল কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে এখনও কোনও মুখ খোলেননি।

আরও পড়ুন, 'চাইনিজ-নেপালিজ' তোমরা রোগ নিয়ে এসেছ, ফেসবুকে ভাইরাল কলকাতার জাতি বিদ্বেষ