দলের নির্দেশ ছিল সোমবারের মধ্যে মেয়র পদ থেকে ইস্তফা দিতে হবে। কিন্তু সেই নির্দেশ মানতে নারাজ বিধাননগরের মেয়র। বাধ্য হয়ে এবার সব্যসাচীকে মেয়র পদ থেকে সরিয়ে দিতে অনাস্থা প্রস্তাব আনতে চলেছে তৃণমূল কংগ্রেস। সোমবার এ কথা জানিয়েছেন বিধাননগরের ডেপুটি মেয়র তাপস চট্টোপাধ্যায়। 

তাপসবাবু জানিয়েছেন, পুরমন্ত্রীর নির্দেশেই অনাস্থা প্রস্তাব আনা হচ্ছে। দলের সব কাউন্সিলরদের সঙ্গে তাঁর কথাও হয়েছে বলে জানান তাপস চট্টোপাধ্যায়। মঙ্গলবারই এই অনাস্থা প্রস্তাব আনা হবে। 

এর আগে এ দিন সকালে অবিলম্বে সব্যসাচীকে বিধাননগরের মেয়রের পদ থেকে ইস্তফার নির্দেশ দেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সব্যসাচীকে ফোন করে ফিরহাদ হাকিম এই নির্দেশ দেন বলে সূত্রের খবর। যদিও, এই নির্দেশের কথা এখনও স্বীকার করেননি বিধাননগরের মেয়র। তিনি সাফ জানান, যতক্ষণ না দল তাঁকে লিখিত নির্দেশ দিয়ে পদত্যাগ করতে বলছেন, ততক্ষণ কোনও পদক্ষেপ করবেন না তিনি। 

সব্যসাচী নিজে থেকে মেয়র পদে ইস্তফা না দিলে তাঁকে সরিয়ে দিতে অনাস্থা প্রস্তাব আনা ছাড়া উপায় ছিল না তৃণমূলের। সব্যসাচীর মনোভাব বুঝে সে পথেই হাঁটল শাসক দল। তবে অনাস্থা প্রস্তাব আনলেও তিনি যে তৈরি, তা বুঝিয়ে দিয়েছেন বিধাননগরের মেয়র। বিধাননগর পুরসভার ৪১টি আসনের মধ্যে মোট ৩৯ জন তৃণমূল কাউন্সিলর রয়েছেন। তার মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের বেশ কিছু কাউন্সিলর সব্যসাচী দত্তের পক্ষে রয়েছেন। রবিবার তৃণমূল ভবনে পুরমন্ত্রীর ডাকা বৈঠকেও যাননি ওই কাউন্সিলররা। সব্যসাচী নিজেও দাবি করেছেন, অনাস্থা প্রস্তাব আনা হলে তিনি তাঁর জন্য তৈরি।