শহর কলকাতার আকাশ আজ সারা দিন পরিষ্কার ছিল। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী,মঙ্গলবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি।  এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। পাশাপাশি সারা দেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গেও তাপপ্রবাহ বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিচ্ছে আবহাওয়া দফতর। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, এপ্রিলে পারদ চড়বে আরও অনেকটাই। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে তাপমাত্রা বেড়ে হবে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। 

 আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী,মঙ্গলবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকতে পারে  ৩৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি।  শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৮৫ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ২৩ শতাংশ। মঙ্গলবার  এই মুহূর্তে শহরের তাপমাত্রা ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।   আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী,  সোমবার রাতেই জম্মু-কাশ্মীর উত্তর-পশ্চিম ভারতের ঢুকছে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। এর ফলে আগামী ৪৮ ঘণ্টা উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলিতে আবহাওয়ার পরিবর্তন। 

আরও পড়ুন, কলকাতার কোথায় গেলে পাবেন মনের মত ইডলি, রইল সেই সেরা ঠিকানার হদিশ

 হাওয়া অফিস জানিয়েছে, রাজ্য়ে আগামী কয়েক দিন পরিষ্কার আকাশই থাকবে এবং তাপমাত্রা সামান্য বাড়ার ইঙ্গিত। ইতিমধ্যেই স্বাভাবিকের ওপরে উঠেছে পারদ। আপাতত ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলেই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর ৷  নতুন করে পশ্চিমী ঝঞ্জা ঢুকবে জম্মু-কাশ্মীরে। যার জেরে মঙ্গলবার ব্যাপক বৃষ্টি ও শিলাবৃষ্টি এমনকি তুষারপাতের সম্ভাবনা জম্মু কাশ্মীর ও লাদাখ এলাকায়। বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি ও দমকা হাওয়া বইবে জম্মু-কাশ্মীর, হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, পঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড় ও দিল্লিতে। হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা দার্জিলিং কালিম্পং-এ। দক্ষিণবঙ্গের দুই-এক জায়গায়ও বৃষ্টির সম্ভাবনা। পাশাপাশি, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। 

আরও পড়ুন, জলাশয়ের জ্য়ান্ত মাছ এবার আসবে বাড়ি, লকডাউনে প্রতিশ্রুতি রাজ্য মৎস্য উন্নয়ন নিগমের

সারা দেশের সঙ্গে পশ্চিমবঙ্গেও  তাপপ্রবাহ বৃদ্ধির ইঙ্গিত দিচ্ছে আবহাওয়া দফতর। আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, এপ্রিলে তাপমাত্রা বাড়বে আরও অনেকটাই। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহে তাপমাত্রা বেড়ে হবে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এপ্রিল-মে জুন এই তিন মাসের মরশুমি পূর্বাভাসে এই ইঙ্গিত দিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরের অধিকর্তা গণেশ কুমার দাস জানান, পশ্চিমবঙ্গের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলি কোর হিট ওয়েভ জুনের মধ্যে পড়ছে।  ৪০ শতাংশ পর্যন্ত ফ্রিকোয়েন্সি বাড়তে পারে। গড় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা অনেকটা বাড়তে পারে রাজস্থান এবং গুজরাতে। 

জ্বর নিয়েই ট্রেন করে একটানা অফিস, ভয়ে কাঁটা রাজ্য়ের করোনা আক্রান্তর সহকর্মীরা

ফের তথ্য গোপন করোনা আক্রান্ত প্রৌঢ়ের ভাইয়ের, আইসোলেশনে ভর্তি বরানগরের বাসিন্দা

৪জনের বেশি ঢুকতে বাধা শ্মশানে, করোনা রুখতে নয়া বিধি পুরসভার