সোশ্যাল মিডিয়ায় হাতছানি, কখনও বা পেশার চাপ। এত সব কিছুর মধ্যে কোথাও যেন হারিয়ে শিকড়হীন হয়ে পড়ছে বাঙালি। এমন ধরনের ভাবনা মাঝে মাঝেই এসে যায় সৃজনশীল বাঙালির মাথায়। তবে কর্মব্যস্ত জীবনে যতই দৌঁড়ঝাপ লেগে থাকুক না কেন, কোথাও না কোথাও বাঙালির শিকড় আটকে রয়েছে কবিগুরুর লেখনীর সঙ্গেই। দেশে বিদেশে সকল বাঙালির প্রত্যেকটি মুহূর্তের সঙ্গে তাঁর লেখা যেন জুড়ে রয়েছে। আমাদের প্রতিটি মুহূর্তের কথা উপলদ্ধি করে কবিগুরু রেখে গেছেন তাঁর লেখনীর সমগ্র। তাই বসন্ত উৎসবে শান্তিনিকেতনের ছোঁয়া পেতে ৮ মার্চ রবিবার বেঙ্গালুরুর 'আনন্দ সমাগম'-এর পক্ষ থেকে অনুষ্ঠিত হল বসন্ত উৎসব।

আরও পড়ুন- দোল জমে উঠুক সিদ্ধি ঠান্ডাই এর সঙ্গে, রইল বানানোর সহজ পদ্ধতি

আরও পড়ুন- কলকাতার বুকে এমন কিছু ঠিকানা, যেখানে পাবেন উন্নতমানের ভাঙ

বসন্ত উৎসব পালনে ব্যাবেঙ্গালুরুর সমস্ত উৎসাহী প্রবাসী বাঙালি হাজির হয়েছিলেন এদিন। অনুষ্ঠানের বিষয়বস্তু ছিল রবি ঠাকুরের গান, কবিতা ও নত্যৃ পরিবেশনের মাধ্যমে বেঙ্গালুরুতে থাকা বহু শান্তিনিকেতনের প্রাক্তণীরাও এই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। আনন্দ সমাগম এর শিল্পীদের সঙ্গে তারা অনুষ্ঠানও করেছেন। আনন্দ সমাগম এর শিল্পীদের পরিচালিত এই অনুষ্ঠান কয়েক মুহূর্তের জন্য অবিকল শান্তিনিকেতনের এক রূপ ধারণ করেছিল।

আরও পড়ুন- পুরুষতান্ত্রিক সমাজেকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে, মহিলা পরিচালিত এই গ্রাম আজ আলোচনার শীর্ষে

অনুষ্ঠানের মূল বিশেষত্ব এখানে আগত ইচ্ছুক প্রত্যেককে হলুদ রঙা পোশাক পরে আসার অনুরোধ করা হয়েছিল। প্রকৃতির সাজে হলুদ বর্ণের সমারোহে আনন্দ সমাগম এর পক্ষ থেকে আয়োজিত এই অনুষ্ঠান এক অন্য বর্ণময় রূপ ধারণ করেছিল। এই অনুষ্ঠানের প্রবেশ মূল্য হিসেবে ছিল বেঙ্গালুরুতে থাকা প্রতিটি বাঙালির উপস্থিতি সেই সঙ্গে আনন্দ কোনও রকমের প্রবেশমূল্য ছাড়াই এখানে বসন্ত উৎসবে মেতে ওঠার অবারিত দ্বার খোলা ছিল সকলের জন্য।