নুন খাওয়া শরীরের পক্ষে ক্ষতিকর। সব জেনেও খাওয়ার সময় কাচা  নুন খাচ্ছেন। এটা ঠিক নয় জেনেও  এই কাজটি বারবার করছেন। অনেকেই আছেন যারা খেতে বসার সময় পাশে নুনের কৌটো নিয়ে বসেন। একটু পরপর খাওয়ারের সঙ্গে সঙ্গে নুন খান। আর এতে নিজেই ডেকে আনছেন মারাত্মক বিপদ। 

আরও পড়ুন-এই ওয়েবসাইট থেকে টিকিট কাটছেন, খোয়া যেতে পারে আপনার টাকা...

নুনের মূল উপাদান হল সোডিয়াম ক্লোরাইড। যেটি প্রাণীর জীবনের জন্য অপরিহার্য। কিন্তু  অধিকাংশ সময়ে  এটা জেনেও আমরা সেই কাজটি করি।  নুনের এই স্বাদকে মৌলিক স্বাদ হিসেব গণ্য করা হয়। রান্নাতেই এটি মূলত ব্যবহার করা হয়। এই নুন আবার অনেক ধরনের হয়। যেমন অপরিশোধিত সামুদ্রিক নুন, পরিশোধিত খাবার নুন, আয়োডিনযুক্ত নুন ইত্যাদি।  কিন্তু এই নুন বেশি পরিমাণে ব্যবহার করা একদমই ঠিক নয়।

আরও পড়ুন-একগুচ্ছ নতুন প্রিপেড প্ল্যান ও অফার নিয়ে হাজির ভোডাফোন, জেনে নিন বিস্তারিত...

বিশেষত যাদের হাইপ্রেশার রয়েছে তাদের এই নুন খাওয়া একদমই ঠিক নয়। তাদের শরীরের জন্য নুন একপ্রকার বিষ। বেশি নুন মিশিয়ে কোনও খাবার খেলে পেটের সমস্যা হতে পারে। অতিরিক্ত নুন খেলে পেটের সমস্যা হতে পারে। এমনকী পাকস্থলির ক্যান্সারেও আপনি আক্রান্ত হতে পারেন। 

যারা অতিরিক্ত নুন জাতীয় খাবার খেতে পছন্দ করেন, তাদের জন্য আশঙ্কা অনেক বেশি থাকে। অতিরিক্ত নোনাজাতীয় খাবার খেলে জ্বর হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। আবার নুন জাতীয় খাবার খেলে শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দেখা যায়।

 

নুনের মধ্যে আয়োডিন থাকে যা মস্তিষ্কের জন্য ভাল। তাই বলে লাগাতার নুন খাওয়া কখনওই ভাল নয়। সারাদিনে নুনের পরিমাণ পাচ গ্রামের মধ্যে রাখলে  ৩০ লক্ষ পর্যন্ত মৃত্যু কমতে পারে। এর পাশাপাশি স্ট্রোকের ঝুঁকিও কমে। তাই জন্য কম পরিমাণে নুন খাওয়া দরকার।