বিয়ের আর মাত্র কয়েকদিন বাকি। কিন্তু আয়নার সামনে দাঁড়ালে মনে হচ্ছে আরও একটু রোগা হলে বেশি ভাল লাগত। আর এই কয়েকদিনের মধ্যে কীভাবে নিজেকে ফিট রাখবেন বুঝতে পারছেন না। এখন আর চিন্তার কোনও কারণ নেই। বিয়ের আগে নিজেকে ফিট রাখতে রইল কিছু ফিটনেস টিপস।

আরও পড়ুন-জলের দামে মিলবে স্মার্টফোন, বাম্পার অফার আমাজনের...

এতদিন যেহেতু এক্সারসাোইজ করেননি তাই কোথা থেকে শুরু করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। এক্সারসাইজের অভ্যাস না থাকলে সবার প্রথমে হাঁটা শুরু করুন। কারণ হাঁটাতেই লুকিয়ে রয়েছে সুস্থতার চাবিকাঠি। বিয়েৎ আগে নিজেকে স্লিম এন্ড ট্রিম রাখতে প্রতিদিন হাঁটুন।

ফিট রাখতে গিয়ে কঠোর ডায়েটের মধ্যে একদম যাবেন না। সবকিছুই খাবেন কিন্তু অল্প পরিমাণে। বেশি করে জল খান। এতে শরীর থেকে টক্সিন দূর হবে।

সকালের ব্রেকফাস্ট কখনওই এড়াবেন না। সকালের দিকে ভারী খাবার খান। দুপুরে হাল্কা খাবার খান। যতটা পারবেন জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলুন।

পর্যাপ্ত পরিমাণে ঘুমোন। তবে অত্যাধিক ঘুমোবেন না। রাতে ৮-৯ ঘন্টা ঘুমোন কিন্তু ১০-১২ ঘন্টা ঘুমোবেন না।

 

বিয়ের আগে চকোলেট, চিপস, আইসক্রিমের পরিবর্তে টাটকা শাক-সব্জি খান। এতে ত্বক যেমন ভাল থাকবে তেমনই ত্বক উজ্জ্বল দেখাবে।

সপ্তাহে কুড়ি মিনিট অ্যারোবিক এক্সারসাইজ করুন। এতে শরীরে রক্ত চলাচল ঠিক থাকবে। ধীরে ধীরে জগিংও করতে পারেন।

অ্যালকোহল জাতীয় পানীয় থেকে দূরে থাকুন। সঠিক নিউট্রিশনই আপনার সুস্থ থাকার চাবিকাঠি।

প্রতিদিন ঘুমোতে যাওয়ার আগে দশ মিনিট হাঁটাচলা করে নিন। এতে শরীরের রক্ত চলাচল ঠিকমতো হবে। 

আপনার ডিপ্রেশনের প্রভাব পড়ছে আপনার শিশুর উপর, সচেতন হোন এখনই...

আরও পড়ুন-আপনার ডিপ্রেশনের প্রভাব পড়ছে আপনার শিশুর উপর, সচেতন হোন এখনই...

 

 

শুধু এক্সারসাইজ করলেও হবে না, মনকেও ভাল রাখতে ঘন্টা দুয়েক হাসির সিনেমা দেখুন।

যদি কর্মব্যস্ততার মধ্যে সারাদিন ব্যায়াম না করার সময় পান, তাহলে সকাল বেলা বা  সন্ধ্যেবেলায় একটু সময় বের করে অবশ্যই ব্যায়াম করুন।

ব্যায়ামের সঙ্গে প্রতিদিনের খাওয়ার ভারসাম্য ঠিক রাখুন। এতে ব্যায়ামের সঠিক সুফল পাওয়া যাবে।

বিয়ের একসপ্তাহ আগে নয়, বরং বিয়ের কয়েকমাস আগে থেকে নিয়ম করে এই জিনিসগুলি মেনে চললেই আপনি ফিট থাকবেন।