শরীর সুস্থ রাখতে আয়রন কতটা প্রয়োজন তা বলাই বাহুল্য। শরীরে মিনারেলের অভাব দেখা দিলে আয়রনের অভাব দেখা যায়। আয়রনই শরীরে হিমোগ্লোবিন তৈরি করে। এছাড়া রক্তে এক ধরনের  ব্লাড সেল থাকে যা রক্তে অক্সিজেন সঞ্চালনে সাহায্য করে। রক্তে যথেষ্ট পরিমাণে হিমোগ্লোবিন না থাকলে শরীরের পেশীগুলি দুর্বল হয়ে পড়ে। 

আয়রনের অভাবেই বিভিন্ন ধরনের অ্যানিমিয়া হয়। এছাড়া রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতাও বেশ কয়েকটা কমে যায়। কিন্তু অনেক সময়েই সহজে বোঝা যায় না, আয়রনের অভাব রয়েছে কি না। সেক্ষেত্রে কী কী উপসর্গ দেখে বুঝবেন আপনার শরীরে আয়রনের অভাব রয়েছে কি না জেনে নিন- 


১)চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন আয়রনের ঘাটতি দেখা দিলে শরীর হঠাৎ দুর্বল হয়ে যেতে পারে। সারাদিনই শরীরে ক্লান্তি বোধ হয়। এই উপসর্গ দেখলে সাবধান হোন। 

২) নখ দেখেও বোঝা যায় শরীরে আয়রনের অভাব হলো কি না। তাই লক্ষ্য করুন আপনার নখ হঠাৎ কি নকরম হয়ে গিয়েছে! যদি তাই হয়, তা হলে আয়রনের অভাব একটি কারণ হতে পারে। 

৩) জিভ দেখেও বুঝতে পারবেন আপনার শরীরে আয়রনের ঘাটতি রয়েছে কি না। যদি দেখেন হঠাৎ জিভ ফুলে গিয়েছে, তা হলে অবশ্যই আয়রন সমৃদ্ধ খাবার খাওয়া শুরু করুন। তার আগে অবশ্যই চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 

৪) মাথা যন্ত্রনার পিছনে বিভিন্ন কারণ থাকতে পারে। সাইনাস, মাইগ্রেন ইত্যাদি। কিন্তু অনেক সময়ে আয়রনের অভাব হলেও প্রায়ই মাথা ধরার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৫) লক্ষ্য রাখুন অল্প পরিশ্রমেই কি আপনি হাঁপিয়ে যাচ্ছেন। একটু হাঁটলেই নিঃশ্বাস কষ্ট হচ্ছে! বিভিন্নো রোগে এই উপসর্গ দেখা যায়। তবে আয়রনের অভাব থাকলেও এই অসুবিধা হয়। 

৬) হঠাৎ হৃদস্পন্দন বেড়ে যাওয়া মোটেই স্বাস্থ্যকর নয়। শরীরে আয়রনের ঘাটতি থাকলেও এই সমস্যা হতে পারে।

৭) আরও একটি চোখে পড়ার মতো লক্ষণ হল হঠাৎ হঠাৎ হাত পা ঠান্ডা হয়ে যাওয়া। এরকম প্রায়ই হতে থাকলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। 

৮) ঘনঘন জ্বর আসছে বা সর্দি কাশি হচ্ছে! সব সময়ে ঠান্ডা লাগার কারণে এমনটা না-ও হতে পারে। অনেক সময়ে শরীরে আয়রনের অভাবেও এই সমস্যা হতে পারে। 

৯) যদি দেখেন অধিক পরিমাণে হঠাৎ করে চুল পড়ছে, সাবধান হোন। কারণ আয়রনের অভাবে অনেক সময়েই চুল পড়ে।