ছবিঃ   'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'

পরিচালকঃ অরিত্র মুখোপাধ্যায়

অভিনেতা-অভিনেত্রীঃ ঋতাভরী চক্রবর্তী, সোহম মজুমদার, সোমা চক্রবর্তী, মানসী সিংহ, শুভাশিস মুখোপাধ্যায়, সাহেব চট্টোপাধ্য়ায় এবং অম্বরীশ ভট্টাচার্য

গল্পঃ       স্বয়ং সারদা দেবীও মাসিক চলাকালীন ভবতারিণীর ভোগ রান্না করতেন। শ্রীরামকৃষ্ণের অনুমতি নিয়ে মা ভবতারিণীর নিজ হাতে পূজো করতেন।  যেখানে পুরুষতান্ত্রিক সমাজ মেয়েদের অশুচি বলে ইশ্বরের পূজো দেওয়া থেকে বঞ্চিত করে রেখেছে।  ঋতুমতী অবস্থায় পুজো করা পাপ। এই সমস্ত সোশ্য়াল ট্য়াবু ভাঙার দিন এবার সময় এসেছে। তাই সারদা দেবীর মতই সাধারণ সংসারে অসাধারণ হয়ে ওঠা কাহিনী বলল  'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'। সমাজে মেয়েদের অধিকার পাইয়ে দিতে, যাবতীয় অসাম্য় ভেঙে সাম্য়ের প্রতিষ্ঠা করল শবরীর ভূমিকায় ঋতাভরী। যে এখানে সংস্কৃতের অধ্যাপিকা এবং পারফর্মিং শিল্পী এবং একই সঙ্গে সে অন্য পেশায়ও যুক্ত। যেখানে সে তার বাবার থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে মহিলা পুরোহিত রূপে সমাজের পুরানো রীতিনীতি, আচার এবং লিঙ্গ ভারসাম্যহীনতার ট্য়াবু ভাঙবে। । আর তাঁকে ভরসা আর ভালবাসায় ভরিয়ে দিতে ছবিতে বিক্রমাদিত্যর ভূমিকায় রয়েছেন  সোহম মজুমদার।  

অভিনয়ঃ শবরীর ভূমিকায় ঋতাভরী চক্রবর্তী অনবদ্য়। বাড়িতে ভাসুর প্রতাপদিত্য়-র ছেলেকে পড়ানো হোক কিংবা বিক্রমাদিত্য়র সঙ্গে প্রেমের মুহূর্তেও ততটাই সুন্দর। তবে এছবির প্রধান অংশে মহিলা পুরোহিত রূপে মন্ত্র পাঠ এবং অনুভবের সহিত স্পষ্ট উচ্চারণে ঋতাভরীর মেধা ফুটে উঠেছে।  শবরীর স্বামী বিক্রমাদিত্য়-র ভূমিকায় সোহম মজুমদার ফ্রেমে এতটাই সহজ যে, তার অভিনয় প্রশংসার দাবি রাখে। পাশাপাশি নারী জাতির প্রতি সমর্থন তাঁর চোখে যেন বারবার ফুটে উঠছিল। অমরাবতীর ভূমিকায় সোমা চক্রবর্তী আর দশটা ছবির থেকে বেশ অন্য়রকম, ভাল লাগবে তার অভিনয়ে কৌতুকের ছোঁওয়া। প্রতাপদিত্য়-র  ভূমিকায় পরিণত অভিনয়ের মনে দাগ কাটবে অম্বরীশ ভট্টাচার্য। পুরোহিত মশাই-র ভূমিকায় শুভাসিস মুখোপাধ্য়ায় বেশ শক্তিশালী।গুরুদাসীর ভমিকায় মানসী সিংহ মানানসই, তার অভিনয়ে রিলিফ লাগবে দর্শকদের। তবে স্ক্রিনে খুব সামান্য় উপস্থিত ছিলেন শবরীর বাবার ভূমিকায়  সাহেব চট্টোপাধ্য়ায়। কিন্তু তাতেই বাজিমাত করেছেন তিনি। বিশেষ করে ছোট্ট শবরীকে কোলে নিয়ে 'কন্য়াদান'-র উত্তর দিতে গিয়ে যখন সে বলবে তার মেয়েকে কখনই সে দান করতেই পারে না। ওই মুহূর্ততে পিতৃবাৎসল্য়ে খুব স্পর্শ করে গেছেন সাহেব।

চিত্রনাট্যঃ ছবিতে বাতাসীপুরের বিক্রমাদিত্যের সঙ্গে বিয়ে হয় শবরীর। শবরীর  শাশুড়ি অমরাবতী, যিনি গ্রামের পঞ্চায়েত প্রধান। যিনি পুরোহিতের কথা ছাড়া এক মুহূর্তও নড়েন না। কিন্তু তাঁকেই নাড়িয়ে দেবে শবরীর উজ্জ্বল উপস্থিতি। বিশেষ করে যখন তাঁর শাশুড়ি-র কন্য়াদানের কথার উত্তর দিতে গিয়ে জানাবে,  সে মানুষের সঙ্গে মানুষের বিয়ে দেয়। আর সেখান থেকে গল্প মোড় নেয়, কর্মে ও প্রশ্নের উত্তরে সোশ্য়াল ট্য়াবু ভাঙার। পাশাপাশি স্পষ্ট ধারণা তুলে ধরার।

সিনেম্যাটোগ্রাফিঃ  'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি' -র সিনেম্যাটোগ্রাফি করেছেন অলোক মাইতি। উপর থেকে নেওয়া শট থেকে শুরু করে ছবি মাঝে যেখানে বিক্রমাদিত্য়র ও শবরীর ক্লোজ শট ও তারপর ব্য়াক করে ট্রলি শট অন্য়বদ্য। বলা যায় বাংলাছবিতে  বেশ অন্য়রকম সিনেম্যাটোগ্রাফি। তবে সিনেম্যাটোগ্রাফি দিয়ে আপাদমস্তক চেনা জায়গাকে বেশী সিনামেটিক করে চেষ্টা হয়নি। বরং বলা যায় গল্পের সঙ্গে সাযুজ্য় রেখেছে এডিট-র কালার টোনও।  

কথা-গানঃ  ছবিতে চারটি গানই গেয়েছেন মহিলা শিল্পী। বরাবরের মতই মায়বী মিউজিক করেছেন অনিন্দ্য় চট্টোপাধ্য়ায়। গানের কথার সঙ্গে পিকচারইজেন যথেষ্ট সিঙ্ক্রোনাইজ করেছে। শব্দ যে 'ব্রক্ষ্ম', সেই কথাকেই অস্ত্র করে এই ছবি এগিয়েছে।

পরিচালনাঃ 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'  ছবিটি পরিচালনা করেছেন অরিত্র মুখোপাধ্যায়। শিবপ্রসাদের ছবিতে সহকারী পরিচালক হিসেবে দীর্ঘদিন ধরে কাজ করছেন অরিত্র। অরিত্র নিজেই জানালেন,  তার শিক্ষা কোনও ফিল্ম স্কুলে হয়নি। সবটাই শিবপ্রসাদ ও নন্দিতার সেটে। তাই 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি'  গুরুদক্ষিণা হিসেবেই দিতে চেয়েছেন তিনি। এই প্রথম বার উইনডোজ়-এর প্রযোজনায়  'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি' ছবিতে কাজ করছেন ঋতাভরী চক্রবর্তী  এবং সোহম মজুমদার।পরিচালক হিসেবে শুরুটা  ভালই করলেন অরিত্র মুখোপাধ্যায়।  

সমালোচনাঃ ছবিতে বিক্রমাদিত্য়র চরিত্রে আরও ভিন্ন শেড আনলে ভাল লাগত, তারও কিছু অ্য়াক্টিভিটি দেখালে শবরীর চরিত্র মোটেই হালকা হয়ে যেত না। 

বিশ্লেষণঃ 'ব্রহ্মা জানেন গোপন কম্মটি' ছবিটি  চেনা পথের বাইরে গিয়ে নারী দিবসের প্রাক্কালে বস্তা পচা সোশ্য়াল ট্য়াবুকে ভেঙে কতটা রেশ রেখে যাবে কিংবা অ্য়াক্টিভ অ্য়াক্সন হিসেবে কাজ করবে সেটা আগামী দিনই বলবে।